• ঢাকা
  • শনিবার, ১৩ আগস্ট, ২০২২, ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯
প্রকাশিত: মার্চ ২০, ২০২২, ১২:১৪ এএম
সর্বশেষ আপডেট : মার্চ ১৯, ২০২২, ০৬:১৪ পিএম

‘স্কয়ার সুরের সেরা’ হলেন জয়প্রকাশ

‘স্কয়ার সুরের সেরা’ হলেন জয়প্রকাশ
সংগৃহীত ছবি

পেশাগত কাজে দক্ষতা অর্জনের পাশাপাশি যারা শখের বশে গান করেন, স্কয়ার গ্রুপের সেসব প্রতিভাবান সংগীতশিল্পীদের বড় মঞ্চে গান করার সুযোগ করে দেয়ার জন্য সম্প্রতি আয়োজন করা হয়েছিল রিয়েলিটি শো ‘স্কয়ার সুরের সেরা’।

১৯ মার্চ (শনিবার) আয়োজিত হয়ে গেল এই আয়োজনের গ্র্যান্ড ফিনালে।

‘হারিয়ে যাও গানের টানে’-এই প্রত্যয়কে সামনে রেখে আয়োজিত ‘স্কয়ার সুরের সেরা’র মূল বিচারক ছিলেন সুরকার, সংগীতশিল্পী এস আই টুটুল, সংগীতশিল্পী ও স্থপতি রুমানা ইসলাম এবং সংগীত পরিচালক, সংগীতশিল্পী পিন্টু ঘোষ।

তাদের রায়ে ‘স্কয়ার সুরের সেরা’ হয়েছেন স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের জয় প্রকাশ। ১ম রানার আপ হয়েছেন একই প্রতিষ্ঠানের মুমু, দ্বিতীয় রানার আপ স্কয়ার ফুড অ্যান্ড বেভারেজ লিমিটেডের আরিফুল, চতুর্থ স্থান অর্জন করেছেন একই প্রতিষ্ঠানের আনোয়ার ও পঞ্চম স্থান অধিকার করেছেন স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের জুঁই।

তাদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন স্কয়ার গ্রুপের পরিচালক অঞ্জন চৌধুরী পিন্টু, স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর (অপারেশন্স) মিজানুর রহমান, স্কয়ার টয়লেট্রিজ লিমিটেডের হেড অব অপারেশন্স মালিক মোহাম্মদ সাঈদ, স্কয়ার টেক্সটাইস লিমিটেডের ডিরেক্টর (অপারেশন্স) তসলিমুল হক, স্কয়ার ফ্যাশনস লিমিটেডের এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর, মার্কেটিং অ্যান্ড মার্চেন্ডাইজিং মোহাম্মদ আলাউদ্দিন।

বিজয়ী ‘স্কয়ার সুরের সেরা’ শিরোপা জয়ের পাশাপাশি পেয়েছেন নগদ ৫ লাখ টাকা। প্রথম রানার আপ ৩ লাখ টাকা, দ্বিতীয় রানার আপ ১ লাখ টাকা এবং চতুর্থ ও পঞ্চম স্থান বিজয়ীর প্রত্যেকে পেয়েছেন ৫০ হাজার টাকা।

‘স্কয়ার সুরের সেরা’র গ্র্যান্ড ফিনালের আয়োজন শুরু হয় দেশের গানের সাথে নৃত্য পরিবেশনা দিয়ে। ইভান শাহরিয়ার সোহাগের নৃত্য পরিচালনায় নৃত্য পরিবেশন করেন অভিনেত্রী মেহজাবীন চৌধুরী। সদ্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাওয়া গানের জুটি কনা-ইমরান তাদের পুরস্কার বিজয়ী গান পরিবেশন করেন।

গত ৭ জানুয়ারি থেকে মাছরাঙা টেলিভিশনে প্রচার শুরু হয়েছিল জনপ্রিয় এই রিয়েলিটি শো ‘স্কয়ার সুরের সেরা’। প্রায় সহস্রাধিক স্কয়ার পরিবারের সদস্যরা অডিশন রাউন্ডে অংশ নেন। পাবনা, হবিগঞ্জ, ভালুকা, কালিয়াকৈর, চট্টগ্রাম ও ঢাকায় অনুষ্ঠিত হয় এই অডিশন। অডিশন রাউন্ডের বিচারক ছিলেন লেখক, গবেষক, সংগীতশিল্পী অনিমা মুক্তি গোমেজ, সংগীতশিল্পী সুজন আরিফ, সুকণ্যা মজুমদার ঘোষ ও পুলক অধিকারী।

পরে মোট ৩০ জন প্রতিযোগী স্টুডিও রাউন্ডে অংশ নেন এবং সেখান থেকে বিচারকদের নম্বরের ভিত্তিতে বেছে নেয়া হয় ‘স্কয়ার সুরের সেরা’। বিশেষ পর্বগুলোতে অতিথি বিচারক হিসেবে ‘স্কয়ার সুরের সেরা’য় উপস্থিত ছিলেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার বিজয়ী, গুণী সংগীতশিল্পী ফাহমিদা নবী ও কনা, স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের সংগীতশিল্পী ও শব্দসৈনিক মুক্তিযোদ্ধা রফিকুল আলম, গুণী রবীন্দ্রসংগীত শিল্পী সাদী মহম্মদ, ব্যান্ড সংগীতশিল্পী শাফিন আহমেদ, চিত্রনায়ক রিয়াজ, লোকগানের গুণী সংগীতশিল্পী শফি মণ্ডল, ন্যান্সি এবং জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেতা সিয়াম আহমেদ। শুধু গান নয়, ‘স্কয়ার সুরের সেরা’য় গানের বাইরে অভিনয়, কবিতা এবং বহুমুখী গুণেও নিজেদের প্রতিভা দেখিয়েছেন প্রতিযোগীরা।

জাগরণ/সংস্কৃতি/কেএপি