• ঢাকা
  • শুক্রবার, ১৯ জুলাই, ২০১৯, ৩ শ্রাবণ ১৪২৬
Bongosoft Ltd.
প্রকাশিত: জুলাই ১১, ২০১৯, ০৫:৫৩ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : জুলাই ১১, ২০১৯, ০৫:৫৪ পিএম

স্মিথ-ক্যারির জুটির পর আবারো বিপদে অস্ট্রেলিয়া

ক্রীড়া ডেস্ক
স্মিথ-ক্যারির জুটির পর আবারো বিপদে অস্ট্রেলিয়া
স্টিভেন স্মিথ এবং অ্যালেক্স ক্যারি দারুণ জুটি গড়ে অস্ট্রেলিয়ার বিপর্যয় সামাল দিয়েছিলেন। ফটো : আইসিসি

মাত্র ১৪ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে বিশ্বকাপের দ্বিতীয় সেমিফাইনালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়েছিল অস্ট্রেলিয়া। মাঝে ফিফটি তুলে নেয়া স্টিভেন স্মিথ এবং অ্যালেক্স ক্যারির ১০৩ রানের জুটি গড়ে বিপর্যয় সামালও দিয়েছিল। তবে দ্রুতই ক্যারি এবং মার্কাস স্টইনিস আউট হওয়ায় আবারো চাপে পড়েছে অজিরা। ৩০ ওভার শেষে অস্ট্রেলিয়ার সংগ্রহ ৫ উইকেটে ১৩০ রান। 

চতুর্থ উইকেটে স্মিথের সঙ্গে দারুণ জুটি গড়ার পর আদিল রশিদের বলে লেগ সাইডে উড়িয়ে মারতে গিয়ে মিডউইকেটে দ্বাদশ খেলোয়াড় জেমস ভিন্সের হাতে ধড়া পড়ে ৪৬ রান করে ক্যারি সাজঘরে ফেরেন। একই ওভারে রশিদের বলে লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়ে রানের খাতা না খুলেই স্টইনিস প্যাভিলিয়নে ফিরলে ইংল্যান্ড ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নেয়। 

এর আগে বার্মিংহ্যামের এজবাস্টনে বিশ্বকাপের দ্বিতীয় সেমিফাইনালে টসে জিতে আগে ব্যাট করতে নামা অস্ট্রেলিয়া দ্বিতীয় ওভারের প্রথম বলেই জোফরা আর্চারের বলে এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে পড়েন ফিঞ্চ। সেই সাথে সেমির মঞ্চে গোল্ডেন ডাকের লজ্জা উপহার নিয়ে ফিরে যান অজি কাপ্তান। এরপর রিভিউ নিয়েও বাঁচতে পারেননি ফিঞ্চ, বরং একমাত্র সোনার হরিণ রিভিউটিও হাতছাড়া হয়ে গেছে অস্ট্রেলিয়ার। 

পরের ওভারেই ক্রিস ওকসের আঘাতে ব্যক্তিগত ৯ রানে জনি বেয়ারস্টোকে ক্যাচ দিয়ে ফিরেছেন টুর্নামেন্টজুড়ে দারুণ ছন্দে থাকা ডেভিড ওয়ার্নার। ওকসের ওই ওভারেই ফিরে যেতে বসেছিলেন বিশ্বকাপে প্রথম ম্যাচ খেলতে নামা পিটার হ্যান্ডসকম্বও। আম্পায়ার আউট দিয়ে দিলে আর রক্ষা হতো না তাদের। সপ্তম ওভারে ক্রিস ওকসের করা প্রথম বলে মাত্র ৪ রান করেই বোল্ড হন পিটার হ্যান্ডসকম্ব। তখন অজিদের স্কোর দাঁড়ায় ৩ উইকেটে ১৪ রান। 

আরআইএস 

আরও পড়ুন

Islami Bank
ASUS GLOBAL BRAND