• ঢাকা
  • বুধবার, ১৭ জুলাই, ২০১৯, ২ শ্রাবণ ১৪২৬
Bongosoft Ltd.
প্রকাশিত: জুলাই ১২, ২০১৯, ০৮:৫৩ এএম
সর্বশেষ আপডেট : জুলাই ১২, ২০১৯, ০৯:৪২ এএম

নতুন চ্যাম্পিয়ন পাচ্ছে ক্রিকেট বিশ্ব

ক্রীড়া ডেস্ক
নতুন চ্যাম্পিয়ন পাচ্ছে ক্রিকেট বিশ্ব
ইংল্যান্ড হোক বা নিউজিল্যান্ড, ক্রিকেটে তীর্থ লর্ডসে এবার বাজবে নবীনের জয়গান

সেই কবে ১৯৯৬ সালে ক্রিকেট বিশ্বে হঠাৎ সিংহের গর্জন তুলে সবাইকে চমকে দিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল শ্রীলঙ্কা! মাঝে কেটে গেছে ২৩টি বছর। অনুষ্ঠিত হয়েছে পাঁচ-পাঁচটি বিশ্বকাপ। তবে ক্রিকেটের বিশ্ব আসরটা থেকে গেছে একঘেয়ে। লঙ্কানদের পর প্রায় দুই যুগ পেরিয়ে গেলেও আর নতুন কোনো চ্যাম্পিয়নের দেখা পায়নি ক্রিকেট দুনিয়া।  

মাঝের অধ্যায়ের পুরোটাই ছিল বলতে গেলে শুধুমাত্র অস্ট্রেলিয়ার দখলে। এই পাঁচবারের চারবারই বিশ্বকাপের সোনালি ট্রফিটা উঁচিয়ে ধরে ক্যাঙ্গারুরা প্রমাণ করেছে, তারাই যেন ক্রিকেটের একচ্ছত্র অধিপতি! মাঝখানে একবার উপমহাদেশের মাঠে বিজয়ীর হাসি হেসেছে ভারতও। তবে সেটিও দ্বিতীয়বারের মতো। ১৯৮৩'র চ্যাম্পিয়নরা ২৮ বছর পর এসে ২০১১ সালে আবারও পড়েছিল শ্রেষ্ঠত্বের মুকুট। 

ঘরের মাঠের বিশ্বকাপ উপলক্ষ্যে গত চার বছরে দলটাকে ঢেলে সাজিয়েছে ইংল্যান্ড, মরগান বাহিনী ফলও পেয়েছে হাতেনাতে 

অস্ট্রেলিয়া-ভারতের একচ্ছত্র আধিপত্যে ক্রিকেটের মূল আকর্ষণটাই যেন ফিকে হতে বসেছিল। বারবার চেষ্টাতেও ভাগ্যের শিকে ছিঁড়ছিল না দক্ষিণ আফ্রিকা, ইংল্যান্ড, নিউজিল্যান্ডের মতো দলগুলোর। নামীদামী তারকাসমৃদ্ধ দল নিয়ে বিশ্বমঞ্চে এসেও বরাবরই অজি রাজকীয়তার কাছে ম্লান হয়েছে তাদের দ্যুতি। 

তবে এবার আর তা হচ্ছে না। বিশ্বকাপের রাউন্ড রবিন লীগে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে থাকা দুই দল ভারত ও অস্ট্রেলিয়াকে ইতোমধ্যেই বাড়ির টিকেট ধরিয়ে দিয়েছে কিউই বাহিনী ও স্বাগতিক ইংল্যান্ড। আর তাতেই নিশ্চিত হয়ে গেছে, ক্রিকেট বিশ্ব এবার পাচ্ছে নতুন এক বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন। 

২০১৯ বিশ্বকাপের দুই ফাইনালিস্ট নিউজিল্যান্ড ও ইংল্যান্ডকে ক্রিকেট ইতিহাসের সবচেয়ে দুর্ভাগ্যময় দল বললে অত্যুক্তি হবে না। ক্রিকেটের জনক বলে খ্যাত ইংল্যান্ড এবারের আগে খেলেছে তিন তিনটি ফাইনাল, শেষ হাসি হাসা হয়নি একবারও। দুইবার আটকে গেছে সেমিফাইনালে গিয়ে। তবে সেসবই ২৭ বছর আগের ইতিহাস। ১৯৯২ এর পর ব্রিটিশরা কখনো কোয়ার্টার ফাইনালের গণ্ডিই পেরোতে পারেনি। এবার যদি শিরোপাটা তারা ক্রিকেটের 'হোম'এ নিয়ে রাখতে না পারে, আর কবে পারবে তা বলা মুশকিল। 

কি বোলিং, কি ফিল্ডিং; লড়াইয়ের ময়দানে প্রতিপক্ষকে এক চুলও ছাড় দেয়নি নিউজিল্যান্ড

অন্যদিকে ক্রিকেটের আজীবন 'সেমিফাইনালিস্ট' খেতাব পাওয়া নিউজিল্যান্ড মোট ১২ বিশ্ব আসরের ৮টিতেই উঠেছে সেমিফাইনালে। তবে মাত্র চার বছর আগে ঘরের মাঠে ২০১৫ বিশ্বকাপে সাতবারের চেষ্টায় প্রথমবার ফাইনালের মুখ দেখতে সক্ষম হয় কিউইরা। ওই ফাইনাল পর্যন্তই, শেষমেশ আটকে গেছে অস্ট্রেলিয়ার ডেরায়। হট ফেবারিট ভারতকে বিদায় করে দিয়ে চার বছরের মাথায় আরও একটি ফাইনালের দোরগোড়ায় দাঁড়িয়ে কেন উইলিয়ামসনের দল। এবার কি মিলবে ভাগ্যের চাবি? 

তবে ইংল্যান্ড কিংবা নিউজিল্যান্ড, যারাই জিতুক না কেন; শেষ পর্যন্ত জয়টা কিন্তু ক্রিকেটেরই। রাজকীয় খেলাটির একঘেয়ে 'মহাশ্মশান' যে এবার সজীব হতে যাচ্ছে নবীনের জয়গানে!   

এমএইচএস  

আরও পড়ুন

Islami Bank
ASUS GLOBAL BRAND