• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৮ জানুয়ারি, ২০২১, ১৫ মাঘ ১৪২৭
প্রকাশিত: অক্টোবর ৫, ২০১৯, ০৩:১২ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : অক্টোবর ৫, ২০১৯, ০৩:১২ পিএম

দেড়শো মিলিয়ন ইউরো জলে ফেলেছে বার্সেলোনা! 

দেড়শো মিলিয়ন ইউরো জলে ফেলেছে বার্সেলোনা! 
উসমান দেম্বেলের উপর চরম ক্ষুব্ধ বার্সেলোনা। ফটো : এফসিবিএন

লা লিগার উদ্বোধনী ম্যাচে শুরুর একাদশেই ছিলেন উসমান দেম্বেলে। খেলার সময়ই তিনি চোট পান। কিন্তু সেদিনই দলকে না জানিয়ে পরের দিন এ কথা প্রকাশ করেন দেম্বেলে। ফ্রান্সের হয়ে বিশ্বকাপ জেতা দেম্বেলের এরকম খামখেয়ালী আচরণের কারণে হতাশ হয়েছিল বার্সেলোনা। পরে জানা যায়, ৫ সপ্তাহের জন্য তাকে মাঠের বাইরে থাকতে হবে। 

ওইসময় বিষয়টি নিয়ে ক্ষুব্ধ বার্সা পরিচালক এরিক আবিদাল দেম্বেলের এজেন্ট মুসা সিসসোকোর সঙ্গে জরুরি বৈঠকেও বসেন। বৈঠকে আবিদাল সরাসরি মুসাকে  জানিয়ে দিয়েছিলেন, বার্সেলোনা দেম্বেলের আচরণে প্রচণ্ড হতাশ। 

এর আগেও দেম্বেলের খামখেয়ালীপনার কারণে বৈঠকে বসেছিল দুই পক্ষ। যদিও একটি বিশ্বস্ত সূত্র আগেই নিশ্চিত করেছিল, যতই সাবধান করা হোক না কেন, দেম্বেলে কখনোই নিজেকে শোধরাবেন না। ফলে বার্সেলোনায় দেম্বেলের ক্যারিয়ার এখন অনিশ্চয়তার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে।  

অনিয়ন্ত্রিত জীবনযাপন, ফর্ম হারিয়ে ফেলা এবং ইনজুরি পিছু না ছাড়ায় দেম্বেলে এখন কঠিন সময় পার করছেন। যদিও ফ্রান্সের বিশ্বকাপ জয়ী এই ফুটবলারের প্রতিভার কোনো কমতি নেই। 

অনেকটা ধুমকেতুর মতোই ফুটবল অঙ্গনে উসমান দেম্বেলের আবির্ভাব হয়েছিল। মাত্র ১৮ বছর বয়সে পেশাগতভাবে ক্যারিয়ার শুরু করা দেম্বেলে ফুটবল নিয়ে মাঠে তার পারদর্শিতা দেখানোর পাশাপাশি গোল আর অ্যাসিস্টেও ছিলেন নিখুঁত। তাতে সবাই তাকে আগামীর ফুটবল সুপারস্টার হিসেবেই ধরে নিয়ে বসে ছিলেন।

পিএসজির বর্তমান কোচ টমাস টুখেল বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের দায়িত্বে থাকাকালে শিষ্য হিসেবে দেম্বেলেকে পেয়েছিলেন। টুখেলের কোচিংয়ে নিজেকে আরও পরিণত করে  দেম্বেলে ডর্টমুন্ডের হয়ে এক মৌসুমেই ৫০ ম্যাচ খেলে ফেলেন এবং দারুণ পারফরম্যান্সে নিজেকে বিশ্বসেরাদের কাতারে নিয়ে আসেন। 

নেইমার পিএসজিতে চলে যাওয়ার পর তার শূন্যতা পূরণে প্রায় দেড়শো মিলিয়ন ইউরো খরচ করে দেম্বেলেকে দলে টেনে নেয় বার্সেলোনা। ২০১৭ সালের ২৫ আগস্ট বার্সায় নাম লেখানোর পর দেম্বেলে খবরের শিরোনাম হতে থাকেন। তবে তা মোটেও মাঠের পারফরম্যান্সের কারণে নয়, একেবারেই নেতিবাচক ঘটনার জন্ম দিয়ে তিনি আলোচনায় ছিলেন।

ঠিকমতো রিহ্যাব না করা, রাতে পার্টি করতে গিয়ে সময়মতো ঘুম থেকে উঠতে না পারা, ট্রেনিং মিস করা- এসব কারণে দেম্বেলের উপর চরম ক্ষুব্ধ বার্সেলোনা। মূলত, তাকে দল থেকে ছেঁটে ফেলতেই নেইমারকে আবারো ফেরাতে চেয়েছিল কাতালান ক্লাবটি। নেইমারকে শেষ পর্যন্ত নিতে না পারায় আপাতত বার্সার ডেরায় ফ্রেঞ্চ ফুটবলার থেকে গেলেও তাকে সাফ জানিয়ে দেয়া হয়েছে, হয় চরিত্র পাল্টাও না হলে বিদায় নাও।  

আরআইএস 

আরও পড়ুন