• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৯, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
প্রকাশিত: নভেম্বর ১৪, ২০১৯, ০৩:৪৭ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : নভেম্বর ১৪, ২০১৯, ০৩:৪৭ পিএম

২ বছরের জন্য নিষিদ্ধ হচ্ছেন রোনালদো! 

ক্রীড়া ডেস্ক
২ বছরের জন্য নিষিদ্ধ হচ্ছেন রোনালদো! 
দোষী প্রমাণিত হলে দুই বছরের নিষেধাজ্ঞা পেতে পারেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। ফটো : সংগৃহীত

গত ১০ নভেম্বর আলিয়াঞ্জ অ্যারেনায় অনুষ্ঠিত সিরি এ'র ম্যাচে এসি মিলানের বিপক্ষে ম্যাচে কোচের সিদ্ধান্তের প্রতি সম্মান প্রদর্শন না করার কারণে পর্তুগিজ ফুটবলার ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো সমালোচিত হয়েছিলেন। এবার জানা গেল সেই ম্যাচে ভিন্ন এক কারণে দোষী প্রমাণিত হলে রোনালদো দুই বছরের নিষেধাজ্ঞা পেতে পারেন। 

ম্যাচের ৫৫ মিনিটের মাথায় আকস্মিকভাবে দলের সবচেয়ে বড় তারকা ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোকে উঠিয়ে নেন জুভেন্টাস কোচ মাউরিজিও সারি। তার জায়গায় পাওলো দিবালাকে নামানো হয়। আর শেষ পর্যন্ত তার লক্ষ্যভেদেই ইতালিয়ান লীগ সিরি এ'তে এসি মিলানের বিপক্ষে জয় পেয়ে আবারো পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে উঠেছে জুভেন্টাস।

ওই ম্যাচে কোচের তুলে নেয়ার সিদ্ধান্তে অসন্তোষ প্রকাশ করেন পর্তুগিজ তারকা। বেঞ্চে না বসে মুখ ভার করে তিনি সোজা চলে যান ড্রেসিংরুমে। সংবাদমাধ্যমের প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, সেখান থেকে ম্যাচ শেষের আগেই রোনালদো স্টেডিয়াম ত্যাগ করেন।

তবে স্টেডিয়াম ত্যাগ করার জন্য নয়, ভিন্ন এক কারণে দুই বছরের নিষেধাজ্ঞার সামনে দাঁড়িয়ে আছেন সিআর সেভেন। ইতালিয়ান গণমাধ্যমগুলো বলছে, ম্যাচ শেষে অ্যান্টি-ডোপিং রেগুলেশন যেকোনো ফুটবলারের ডোপ টেস্ট করে থাকেন। এই প্রক্রিয়ায় অংশ নেয়ার জন্য খেলা শেষ হওয়ার পরেও ফুটবলারদের স্টেডিয়ামে অবস্থান করতে হয়। ইচ্ছাকৃতভাবে ডোপ টেস্ট এড়িয়ে গেলে যেকোনো বড় শাস্তিই পেতে হয় খেলোয়াড়দের। 

সাবেক ইতালিয়ান তারকা অ্যান্তোনিও কাসানো এক ইতালিয়ান একটি টিভি চ্যানেলে দেয়া সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘সে (রোনালদো) কি ম্যাচ শেষ হওয়ার আগে চলে গিয়েছে? আপনি এটা করতে পারেন না। কারণ অ্যান্টি-ডোপিংয়ে নিয়মনীতি রয়েছে। আমি এর আগে (খেলোয়াড়ি জীবনে) দুই বছরের নিষেধাজ্ঞা এড়াতে স্টেডিয়ামে ফিরে গিয়েছিলাম।’

যদিও গণমাধ্যমের খবর, ডোপ টেস্ট এড়াতে নয়, কোচের উপর রাগ করেই মাঠ ছেড়েছিলেন রোনালদো। সেক্ষেত্রে হয়তো জরিমানা দিয়েও তিনি পার পেতে পারেন।

সূত্র : দ্য ডেইলি মেইল।

আরআইএস 

আরও পড়ুন