• ঢাকা
  • সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১৩ আশ্বিন ১৪২৭
প্রকাশিত: জানুয়ারি ২১, ২০২০, ০৪:২২ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : জানুয়ারি ২১, ২০২০, ০৪:২২ পিএম

খোকন কষ্ট পেয়েছেন, তবে সমর্থন দিয়ে চলেছেন : তাপস 

জাগরণ প্রতিবেদক
খোকন কষ্ট পেয়েছেন, তবে সমর্থন দিয়ে চলেছেন : তাপস 
নির্বাচনি গণসংযোগে ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস - ছবি : জাগরণ

মনোনয়ন পাওয়ার পরে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় সাঈদ খোকনের কাছ থেকে সহযোগিতা প্রত্যাশা করেছিলেন, কেমন সহযোগিতা পাচ্ছেন- এমন এক প্রশ্নের জবাবে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস বলেছেন, ‘তিনি এখনও মেয়র হিসেবে আছেন, সুতরাং আচরণবিধি লঙ্ঘন করে তার কাছে কোনো সহযোগিতা আমরা প্রত্যাশা করি না।  তবে তিনি সব সময় আমাকে সমর্থন দিয়ে চলেছেন। মনোনয়ন না পাওয়ায় তিনি হয়তো মনে একটু কষ্ট পেয়েছেন। কিন্তু দলগতভাবে আওয়ামী লীগ ঐক্যবদ্ধ রয়েছে। সর্বস্তরের নেতাকর্মীই স্বতস্ফূর্তভাবে নির্বাচনের মাঠে থেকে গণসংযোগ কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে।  
মঙ্গলবার (২১ জানুয়ারি) দুপুরে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ৪২ নম্বর ওয়ার্ডের রায় সাহেব বাজার থেকে নির্বাচনি প্রচারণার শুরুতে এমন মন্তব্য করেন। 

বিএনপি প্রার্থীর পক্ষে গণজোয়ারকে হয়েছে বলে তারা দাবি করছে। এ প্রসঙ্গে সাংবাদিকরা মন্তব্য জানতে চাইলে শেখ তাপস বলেন,  দুই সিটি কর্পোরেশনে যে নির্বাচন হচ্ছে এটা স্থানীয় সরকার নির্বাচন। স্থানীয় সরকার নির্বাচনে ঢাকাবাসী তাদের যোগ্য, দক্ষ সেবক হিসেবে নির্বাচিত করবে। সেখানে আমরা লক্ষ্য করছি প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী তারা এই নির্বাচনকে ঢাকাবাসীর উন্নয়নের নির্বাচন হিসেবে তারা নিচ্ছে না। তারা এই নির্বাচনকে তাদের আন্দোলনের অংশ হিসেবে নিচ্ছে। তাদের নেত্রীকে মুক্ত করার আন্দোলন হিসেবে নিচ্ছে। আমরা ঢাকাবাসীর সেবা ও উন্নয়নের লক্ষ্যে কাজ করার জন্য নেমেছি।      

      

ইভিএম নিয়ে বিএনপির অভিযোগ প্রসঙ্গে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশন যে নতুন প্রদ্ধতি ইভিএমের মাধ্যমে যে নির্বাচনের কার্যক্রম করছেন, আমি মনে করি ঢাকাবাসী এটাকে সাদরে গ্রহণ করেছেন। এটা আধুনিক প্রযুক্তি। আমি এখন পর্যন্ত কারও কাছে শুনিনি এটার ব্যাপারে কোনো শঙ্কা প্রকাশ করতে। আমি মনে করি আধুনিক প্রযুক্তি ঢাকাবাসী সাদরে গ্রহণ করেছে।  

আওয়ামী লীগ মনোনীত এই মেয়র প্রার্থী বলেন, আমাদের ৫টি ভাগে যে উন্নয়নের রূপরেখা প্রণয়ন করেছি। আজকে এই ঐতিহ্যবাহী ঢাকা সুত্রাপূর, গেণ্ডারিয়া, কোতোয়ালীসহ আজ এই এলাকায় গণসংযোগ কার্যক্রম করব। আমাদের ৫টি রূপরেখা- ঐতিহ্যের ঢাকা, সুন্দর ঢাকা, সচল ঢাকা, সুশাসিত ঢাকা ও দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনার আওতায় উন্নত ঢাকা গড়ে তোলা।  এই নবযাত্রা ও নবসূচনায় আমি বিশ্বাস করি ঢাকাবাসী দল-মত নির্বিশেষে সকলেই উন্নত ঢাকার পক্ষে রায় দেবেন।  

তাপস বলেন,  উন্নত ঢাকা গড়ার বার্তা নিয়ে আমরা যেখানে যেখানে গণসংযোগ করেছি সেখানেই বিপুল ও স্বতঃস্ফূর্ত সাড়া আমরা পেয়েছি। ঢাকাবাসী অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছে- আগামী ১ ফেব্রুয়ারি তারা নৌকা মার্কায় ভোট দিবে। উন্নত ঢাকা গড়ার লক্ষ্যেই তারা তাদের এই রায় প্রদান করতে চায়। তিনি বলেন, এর মধ্য দিয়ে একটি নবসূচনা হবে। আমাদের এই প্রাণের ঢাকাকে উন্নত ঢাকা করার লক্ষ্যে একটি নবসূচনা আমরা শুরু করব।  

এসময় তিনি ৪২ নম্বর ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগ মনোনীত কাউন্সিলর প্রার্থী হাজী মো. সেলিম ও মহিলা কাউন্সির প্রার্থী নাসিমা আহমেদকে পরিচয় করিয়ে দেন। আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও অবিভক্ত মহানগর আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু আহমেদ মান্নাফি, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য  অ্যাডভোকেট সানজিদা খানমসহ থানা-ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতারা এসময় উপস্থিত ছিলেন।

এএইচএস/ এফসি