• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ০৯ এপ্রিল, ২০২০, ২৬ চৈত্র ১৪২৬
প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২০, ২০২০, ০৪:৩৪ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : ফেব্রুয়ারি ২০, ২০২০, ০৪:৩৪ পিএম

চুড়িহাট্টা ট্র্যাজেডি

ক্ষতিগ্রস্ত ৩১ পরিবারের পাশে দাঁড়ালো ডিএসসিসি 

জাগরণ প্রতিবেদক
ক্ষতিগ্রস্ত ৩১ পরিবারের পাশে দাঁড়ালো ডিএসসিসি 

পুরান ঢাকার চকবাজার এলাকায় অবস্থিত চুড়িহাট্টার ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত ৩১ পরিবারকে সহায়তা দিয়েছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি)। 

বৃহস্পতিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে নগর ভবনে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে এসব পরিবারকে সহায়তা প্রদান করেন মেয়র সাঈদ খোকন।

সহায়তার অংশ হিসেবে ৩১ পরিবারের ২১ জনকে সিটি করপোরেশনে পরিচ্ছন্নকর্মী হিসেবে ( মাস্টার রোল) নিয়োগপত্র দেয়া হয়েছে। চার জনকে দুই লাখ টাকা করে অনুদান দেয়া হয়েছে। আর দুই জনকে একটি দোকান বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। এছাড়া উচ্চ শিক্ষিত চার জনকে যোগ্যতা অনুসারে আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে চাকরি দেওয়ার নিশ্চয়তা দেয়া হয়েছে।

অনুষ্ঠানে সাঈদ খোকন বলেন, ‘আমরা ৩১ জনের আবেদন পেয়েছিলাম, ওই আবেদনের ভিত্তিতে আজ তাদের সহায়তা দেয়া হলো। দুর্ঘটনার দিন আমি সিটি করপোরেশনের কর্মকর্তাদের নিয়ে অসহায় মানুষের পাশে ছিলাম। আমরা আপ্রাণ চেষ্টা করেছি জীবন বাঁচাতে, কিন্তু পারিনি। ১৫-২০ গজ দূরে দাঁড়িয়ে মানুষগুলোর পাশে ছিলাম। আমাদের চেষ্টার কোনও কমতি ছিল না। আমার দায়িত্বের পাঁচ বছরে গুরুত্বপূর্ণ চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করতে হয়েছে। এর মধ্যে চুড়িহাট্টার দুর্ঘটনা একটি।’

মেয়র আরও বলেন, ‘আগে জীবন, পরে জীবিকা। দক্ষিণ সিটি করপোরেশন জীবনের নিরাপত্তারকে অগ্রাধিকার দিয়েছে। পুরান ঢাকার ব্যবসায়ীদের নিয়ে বসেছি। আলাপ আলোচনা হয়েছে, অগ্নিনির্বাপণ বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে। আমরা যদি ঘটনা ভুলে যাই, তাহলে পুনরাবৃত্তি ঘটতে পারে। সব সময় সতর্ক থাকতে হবে। দ্রুত পুরান ঢাকা থেকে কেমিক্যাল গোডাউন সরানো গেলে ঝুঁকি কমবে। আশা করি, শিল্প মন্ত্রণালয় এ বিষয়ে ভূমিকা রাখবে।’

২০১৯ সালের ২০ ফেব্রুয়ারি রাতে পুরান ঢাকার চকবাজারের চুড়িহাট্টায় ভয়াবহ আগুন লেগে ৭১ জন প্রাণ হারান। আগুনে পুড়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয় ওই এলাকার কেমিক্যাল গোডাউনসহ বহু স্থাপনা।

এসকে/এমএইচবি