• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ০২ এপ্রিল, ২০২০, ১৮ চৈত্র ১৪২৬
প্রকাশিত: মার্চ ৫, ২০২০, ০৭:২৮ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : মার্চ ৫, ২০২০, ০৭:৩১ পিএম

‘মাস শেষ হওয়ার আগেই মশকমুক্ত হবে ডিএনসিসি’

জাগরণ প্রতিবেদক
‘মাস শেষ হওয়ার আগেই মশকমুক্ত হবে ডিএনসিসি’
জরুরি সভায় নবনির্বাচিতমেয়র আতিকুল ইসলামসহ অন্যান্যরা ● জাগরণ

রোববার (৮ মার্চ) থেকে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন-ডিএনসিসি ওয়ার্ড পর্যায়ের মশক নিধন কার্যক্রম ১১টি টিমের মাধ্যমে মনিটরিং করা হবে। প্রতিটি টিম প্রতিদিন মনিটরিং শেষে প্রতিবেদন জমা দেবে। 

বৃহস্পতিবার (৫ মার্চ) সকালে উত্তরা কমিউনিটি সেন্টারে ডিএনসিসির মশক নিয়ন্ত্রণ সম্পর্কিত জরুরি সভায় এ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন ডিএনসিসির নবনির্বাচিত মেয়র আতিকুল ইসলাম।

ডিএনসিসির ভারপ্রাপ্ত মেয়র জামাল মোস্তফার সভাপতিত্বে ডিএনসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আবদুল হাই, সচিব রবীন্দ্রশ্রী বড়ুয়া, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোমিনুর রহমান মামুন, মশক নিধন সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও ওয়ার্ড কাউন্সিলর দেওয়ান আবদুল মান্নান, ওয়ার্ড কাউন্সিলর মতিউর রহমান, ফোরকান হোসেন, ফরিদ আহমেদ, কাজী জহিরুল ইসলাম মানিক, মোবাশ্বের চৌধুরী প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

আতিকুল ইসলাম বলেন, মশা নিয়ন্ত্রণে সম্ভাব্য সব কিছু করতে হবে। আগামী এক মাসের মধ্যে মশকমুক্ত শহর দেখতে চাই। মশক কর্মীরা যাতে ঠিক মতো কাজ করে এ জন্য তাদের তদারকি করতে হবে। অনেক মশক কর্মী ঠিক মতো কাজ করে না। মশক নিধন কর্মী, ওয়ার্ড সচিব, সহকারী স্বাস্থ্য কর্মকর্তা, আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা, কাউন্সিলর সবাইকে জবাদিহি করতে হবে। মার্চ মাস শেষ হওয়ার আগেই মশা নিয়ন্ত্রণে আনতে চাই।

তিনি জানান, যেসব বাড়িতে/স্থাপনায় মশার লার্ভা পাওয়া যাবে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে তাদের জেল-জরিমানা করা হবে।

ভারপ্রাপ্ত মেয়র জামাল মোস্তফা বলেন, একটি মানুষও ডেঙ্গু-চিকুনগুনিয়ায় মৃত্যুবরণ না করে সেজন্য আমাদের সর্বোচ্চ সচেষ্ট থাকতে হবে। 

এএইচএস /