• ঢাকা
  • বুধবার, ২৫ মে, ২০২২, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯
প্রকাশিত: মে ১৩, ২০২২, ১১:৩৯ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : মে ১৩, ২০২২, ০৫:৩৯ পিএম

তেল আমদানিতে দূতাবাসগুলোকে কাজে লাগাতে চায় টিসিবি

তেল আমদানিতে দূতাবাসগুলোকে কাজে লাগাতে চায় টিসিবি

সয়াবিন তেল যেন এখন সোনার হরিণ। তবে বাজারে এর দেখা পাওয়া কঠিন হলেও ব্যবসায়ীদের গুদামে মিলছে লাখ লাখ লিটার তেল।

এ অস্থিরতা চলছে কয়েক মাস ধরেই। কয়েক দফায় দাম বেড়ে, এখন রেকর্ড ১৯৮ টাকা লিটারে কিনতে হচ্ছে সয়াবিন। এতে বেহাল অবস্থা প্রায় সব শ্রেণির মানুষের। পরিস্থিতি মোকাবিলায় টিসিবির মাধ্যমে ভোজ্যতেল আমদানির কথা জানান বাণিজ্যমন্ত্রী।

এ সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা থেকে সয়াবিন আনতে চায় সরকার। শিগগিরই আহ্বান করা হবে দরপত্র। আলোচনা চলছে অর্থ মন্ত্রণালয়ের সঙ্গেও।

ভোজ্যতেল আমদানিকারক টি কে গ্রুপের পরিচালক সফিউল আথহার তাছলিম বলেন, দেশে ভোজ্যতেলের বাজার হাতে গোনা ৬-৭টি প্রতিষ্ঠানের নিয়ন্ত্রণে। বাজারে স্বচ্ছতা ফেরাতে চাহিদার অন্তত ২০ শতাংশ তেল সরকারের আনা উচিত।

এর আগেও সীমিত পরিসরে ভোজ্যতেল আমদানি করেছিল টিসিবি। দেশে বছরে সয়াবিন ও পাম মিলিয়ে মোট চাহিদা ২০ লাখ টনের বেশি।

জাগরণ/অর্থনীতি/এমএ