• ঢাকা
  • রবিবার, ২৬ মে, ২০১৯, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬
Bongosoft Ltd.
প্রকাশিত: মার্চ ২৪, ২০১৯, ০৬:৫৬ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : মার্চ ২৬, ২০১৯, ১০:২০ পিএম

র‌্যাবের তৎপরতায় গণধর্ষণ থেকে বাঁচল তরুণী

জাগরণ প্রতিবেদক
র‌্যাবের তৎপরতায় গণধর্ষণ থেকে বাঁচল তরুণী
-প্রতীকী ছবি

রাজধানীর পার্শ্ববর্তী আশুলিয়ায় ও আবদুল্লাহপুরের মধ্যবর্তী এলাকায় র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) এর তৎপরতায় ২০ বছর বয়সী এক তরুণী গণধর্ষণের হাত থেকে বেঁচে গেলন। এ ঘটনায় বাসটিকে জব্দ করে সুপারভাইজার, চালক ও হেলপারকে গ্রেফতার করে র‌্যাব।

রোববার (২৪ মার্চ) দুপুরে রাজধানীর কাওরান বাজার র‌্যাব মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান র‌্যাব-১ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল সারোয়ার-বিন-কাশেম

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- বাসচালক খলিল মিয়া, সুপারভাইজার মেহেদী হাসান বাবু ও হেলপার রাকিব হোসেন।

সারোয়ার জানান, ওই তরুনী চাকরির সন্ধানে নওগাঁ থেকে সাভার নবীনগরে আসেন। শনিবার বিকালে বাইপাইল থেকে নবীনগর যাওয়ার জন্য আশুলিয়া ক্লাসিক পরিবহনের একটি বাসে ওঠেন। সন্ধ্যায় বাসটি গন্তব্যে না গিয়ে নির্জন জায়গায় থামে। এ সময় বাসের চালক ও সুপারভাইজার তরুণীকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। তরুণীর আত্মচিৎকার শুনে কাছে থাকা র‌্যাবের একটি গোয়ান্দা দল তাকে উদ্ধার করে।

সারোয়ার আরও বলেন, চক্রটি বাস চালানোর পাশাপাশি নারী যাত্রীদের টার্গেট পরে ধর্ষণ করত এবং মূল্যবান জিনিসপত্র ছিনিয়ে নিতো। গ্রাম থেকে আসা অসহায় তরুণীদের গন্তব্যে পৌঁছানোর কথা বলে তারা বাসে তুলে নিত এবং নির্জন জায়গায় গিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে তা ভিডিও করে রাখতো। সেই ভিডিও ইন্টারনেটে ছেড়ে দেয়ার ভয় দেখাতো। অনেকে লজ্জায় বিষয়গুলো গোপন রাখতো।

এইচ এম/এএস
 

Space for Advertisement