• ঢাকা
  • রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৭ আশ্বিন ১৪২৬
প্রকাশিত: এপ্রিল ১, ২০১৯, ০৮:৫৮ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : এপ্রিল ২, ২০১৯, ০২:৫৯ এএম

‘দলীয় প্যাড চুরি করে শপথের জন্য চিঠি দিয়েছেন মোকাব্বির’

তারেক সালমান
‘দলীয় প্যাড চুরি করে শপথের জন্য চিঠি দিয়েছেন মোকাব্বির’
মোকাব্বির খান এমপি

অনেক নাটকীয়তার পর সংসদ সদস্য হিসেবে অবশেষে শপথ নিচ্ছেন বিএনপির নতুন জোট জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শরিক গণফোরাম থেকে নির্বাচিত মোকাব্বির খান। মোকাব্বিরের দাবি তিনি দলের সিদ্ধান্তে সংসদ সদস্য হিসেবে শপথ গ্রহণ করছেন। তবে মোকাব্বিরের এ দাবি খন্ডন করে তার বিরুদ্ধে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ ও নীতিহীনতার অভিযোগ করেছে গণফোরাম।

সোমবার (০১ এপ্রিল) রাতে মোকাব্বির খান দৈনিক জাগরণকে জানান, ‘আমার দল গণফোরামের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আমি সংসদ সদস্য হিসেবে শপথ গ্রহণ করবো আগামীকাল (মঙ্গলবার) দুপুর ১২টায়। শপথ গ্রহণের জন্য আমি ইতোমধ্যেই জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরিন শারমীন চৌধুরী বরাবর চিঠি দিয়েছি। কাল শপথ নেবো। আপনারা ভাল থাকবেন। একই সঙ্গে আমার জন্য দোয়া করবেন।’

তবে মোকাব্বিরের এ দাবির বিষয়ে জানতে গণফোরামের অন্যতম মুখপাত্র প্রশিক্ষণ ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক মো. রফিকুল ইসলাম পথিক দৈনিক জাগরণকে বলেন, না মোকাব্বির খানের এ দাবি সঠিক নয়। শপথের বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষমতা আমাদের দলের কেন্দ্রীয় কমিটি। কেন্দ্রীয় কমিটির কোনো সভায় তার শপথের বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি।

দলীয় সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে শপথ নেয়ায় মোকাব্বির খানের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেয়া হবে কিনা জানতে চাইলে পথিক বলেন, অবশ্যই। দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের কারণে তার বিরুদ্ধে অবশ্যই ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এরপর রফিকুল ইসলাম পথিক আরও বলেন, এটাতো আরও খারাপ কাজ করেছে। সে যখন নমিনেশন নিয়েছে তখনতো আমাদের সাধারণ সম্পাদকের স্বাক্ষরিত চিঠি নিয়েই মনোনয়ন দাখিল করেছে। ওখানে যদি চিঠি যায় সে চিঠিতো অবশ্যই আমাদের সাধারণ সম্পাদকের স্বাক্ষরে যেতে হবে। সে প্যাড কোথায় পেয়েছে সেটাই আমরা ভেবে পাচ্ছি না। সম্ভবত অফিস থেকে বা কোথাও থেকে আমাদের প্যাড সে ‘চুরি’ করেছে। নিজের অভিলাষ, নিজের খায়েশ মেটাতে সে নিজ থেকেই এ পদক্ষেপ নিয়েছে।
 
গত ৩০ ডিসেম্বর দেশে অনুষ্ঠিত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির জোট সঙ্গী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে নির্বাচিত হন গণফোরামের দুই নেতা সুলতান মোহাম্মদ মনসুর ও মোকাব্বির খান। সুলতান মনসুর মৌলভীবাজার-২ আসন থেকে ধানের শীষ প্রতীকে ভোট করে বিজয়ী হন। অনেক নাটকীয়তার পর তিনি গত ৭ মার্চ সংসদ সদস্য হিসেবে শপথ নেন। এরপর তাকে (সুলতান মনসুর) গণফোরাম ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট থেকে বহিস্কার করা হয়। তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে গণফোরামের পক্ষ থেকে স্পিকার বরাবর চিঠিও দেয়া হবে বলে দলটির সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মোহসিন মন্টু সংবাদ সম্মেলন করে জানান। সুলতান মনসুরের সঙ্গে মোকাব্বির খানও শপথ নেবেন বলে জানানো হলেও শেষ পর্যন্ত তিনি পিছু হটে শপথ গ্রহণ থেকে বিরত থাকেন। 

মোকাব্বির খান সিলেট-২ আসন থেকে গণফোরামের দলীয় প্রতীক উদীয়মান সূর্য নিয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। 

শপথের বিষয়ে স্পিকার বরাবর গণফোরামের দলীয় প্যাডে পাঠানো চিঠিতে মোকাব্বির খান লিখেছেন, আমি ও আমার দল গণফোরাম আগামী ২ এপ্রিল বা ৩ এপ্রিল শপথ গ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছি।এ বিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে আমি আপনাকে অনুরোধ জানাচ্ছি।এরই প্রেক্ষিতে আগামীকাল ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী সংসদে তার কার্যালয়ে মোকাব্বির খানকে শপথ বাক্য পাঠ করাবেন। 

সোমবার (১ এপ্রিল) জাতীয় সংসদের জনসংযোগ অধিশাখা থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

টিএস/বিএস 
 

Islami Bank