• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২২ নভেম্বর, ২০১৯, ৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
প্রকাশিত: মে ৪, ২০১৯, ০৩:০৩ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : মে ৪, ২০১৯, ০৩:০৩ পিএম

বাংলাদেশের অ্যাম্বাসেডর হবে ওয়ালটন: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক
বাংলাদেশের অ্যাম্বাসেডর হবে ওয়ালটন: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী
ওয়ালটন ডিজি-টেক ইন্ডাস্ট্রিজে মোবাইল ফোন প্রোডাকশন দেখছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন

 

জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেছেন, ওয়ালটন আমাদের দেশিয় প্রতিষ্ঠান। তাদের তৈরি পণ্য বিশ্বমান সম্পন্ন। উচ্চমানের প্রযুক্তিপণ্য দিয়ে ওয়ালটন দেশের সুনাম বয়ে আনছে। ক্রিকেট যেমন বাংলাদেশের ব্র্যান্ডিং করছে, আমি বিশ্বাস করি একইভাবে দেশের আরেকটি অ্যাম্বাসেডর হবে ওয়ালটন। সরকারি কেনাকাটায় ওয়ালটনের মতো দেশিয় প্রতিষ্ঠান অগ্রাধিকার পাবে।

বৃহস্পতিবার (২ মে) গাজীপুরের চন্দ্রায় ওয়ালটন কারখানা পরিদর্শনকালে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলে জানান তিনি নিজে ওয়ালটন পণ্য কেনেন এবং ব্যবহার করে খুবই সন্তুষ্ট।

ওয়ালটন ডিজি-টেক ইন্ডাস্ট্রিজে তৈরি প্রিন্টেড সার্কিট বোর্ড (পিসিবি) হাতে নিয়ে দেখছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন।

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, ওয়ালটন পণ্যের মানের ব্যাপারে কোনো আপোষ করে না। প্রতিষ্ঠানটি প্রযুক্তিগত উন্নয়ন করে যাচ্ছে। আমি তাদের কারখানা পরিদর্শন করে অভিভূত। তারা এখানে সূক্ষ্ম সূক্ষ্ম সব যন্ত্রাংশ পর্যন্ত তৈরি করছে। তাদের তৈরি পণ্য খুবই উচ্চমানের। যে কারণে ওয়ালটন দেশের মানুষ এবং সংস্কৃতির সাথে মিশে গেছে। বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে হলে প্রযুক্তিপণ্য উৎপাদন এবং তার রপ্তানির বিকল্প নেই।

ওয়ালটন কারখানায় এপ্রিল মাসে সর্বোচ্চ ফ্রিজ উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের সাফল্য উৎযাপনে কেক কাটছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন।

উল্লেখ্য, গাজীপুরের কালিয়াকৈরে প্রায় ৭০০ একর জায়গাজুড়ে স্থাপন করা হয়েছে ওয়ালটনের অত্যাধুনিক কারখানা। এখানে ফ্রিজ, টিভি, এসি, ল্যাপটপ, কম্পিউটার, মোবাইল ফোন, হোম ও ইলেকট্রিক্যাল অ্যাপ্লায়েন্স, মোল্ড-ডাই, লিফটসহ বিভিন্ন উচ্চমানের পণ্য তৈরি হচ্ছে।

একইসঙ্গে ওয়ালটন উৎপাদনের পাশাপাশি বিভিন্ন পণ্যের গবেষণা ও উন্নয়ন, মান নিয়ন্ত্রণ, আন্তর্জাতিক ব্যবসা ইউনিটসহ বিভিন্ন বিভাগ গড়ে তুলেছে। ‘মেইড ইন বাংলাদেশ’ লেখা বুকে নিয়ে ওয়ালটনের তৈরি আন্তর্জাতিক মানের পণ্য বিশ্বের বিভিন্ন দেশে রপ্তানি হচ্ছে। 

আরআইএস