• ঢাকা
  • বুধবার, ২২ মে, ২০১৯, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬
Bongosoft Ltd.
প্রকাশিত: মে ১৫, ২০১৯, ০৫:২৮ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : মে ১৫, ২০১৯, ১১:২৯ পিএম

যে কারণ মামলা হয়েছিল ইমতিয়াজ মাহমুদের বিরুদ্ধে

জাগরণ প্রতিবেদক
যে কারণ মামলা হয়েছিল ইমতিয়াজ মাহমুদের বিরুদ্ধে
লেখক ও কবি ইমতিয়াজ মাহমুদ- ছবি : সংগৃহীত

লেখক ও কবি ইমতিয়াজ মাহমুদ মৌলিক লেখালেখির পাশাপাশি পাহাড়ি ও সংখ্যালঘুদের অধিকার নিয়ে লেখালেখি করেন। দু’বছর আগে নিজের ফেসবুক পাতায় পার্বত্য চট্টগ্রাম ইস্যুতে দেয়া একটি পোস্টকে কেন্দ্র করে শফিকুল ইসলাম নামে এক ব্যক্তি তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনে খাগড়াছড়িতে মামলা করেন মাহমুদের বিরুদ্ধে।

ওই মামলায় বলা হয়েছিলো, ‘‘ইমতিয়াজ মাহমুদের মিথ্যা লেখাসমূহ পড়ে ও দেখে যারা লাইক ও কমেন্ট করে উক্ত লেখাকে সমর্থন করেছেন তারা দেশের প্রচলিত আইনে অপরাধজনক কাজ করেছে।’’ 

ব্যারিস্টার ইমতিয়াজ মাহমুদের ভাই পারভেজ মাহমুদ জানান, ‘আগের মামলাতে জামিনেই ছিলেন ইমতিয়াজ মাহমুদ এবং তার সে জামিন বাতিল করা হয়েছে এমন খবরও তারা শুনেননি।’ 

উল্লেখ্য, শুরু থেকেই সম্পাদক, সাংবাদিক ও মানবাধিকার কর্মীরা তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনকে ‘কালো আইন’ আখ্যায়িত করে এটি বাতিলের দাবি জানিয়ে আসছেন।

সম্প্রতি বরিশালে একটি ফেসবুক পোস্টকে কেন্দ্র করে কবি হেনরি স্বপনকে আটক করা নিয়ে গত কয়েকদিন ধরে তীব্র সমালোচনা হচ্ছে বহুল আলোচিত তথ্য প্রযু্ক্তি আইন নিয়ে। তারইমধ্যে বুধবার (১৫ মে) আটক করা হয় লেখক ইমতিয়াজ মাহমুদকে। তার আটকের খবরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আবারও তীব্র সমালোচনা হচ্ছে তথ্য প্রযুক্তি আইনটিকে নিয়ে।

জেডএইচ/এসএমএম

Space for Advertisement