• ঢাকা
  • সোমবার, ০৯ ডিসেম্বর, ২০১৯, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
প্রকাশিত: নভেম্বর ১৯, ২০১৯, ০৭:৪৪ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : নভেম্বর ১৯, ২০১৯, ০৭:৫৫ পিএম

সরকারি প্রেসনোট

লবণের মূল্যবৃদ্ধির গুজব ছড়ালে কঠোর ব্যবস্থা

জাগরণ প্রতিবেদক
লবণের মূল্যবৃদ্ধির গুজব ছড়ালে কঠোর ব্যবস্থা

লবণের মূল্যবৃদ্ধির গুজবে কান দিয়ে ঢাকাসহ সারাদেশে লবণ কেনার হিড়িক তৈরির মধ্যে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছে সরকার। মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) সন্ধ্যায় তথ্য অধিদফতরের প্রেস নোটে বলা হয়েছে, লবণ নিয়ে কিংবা অন্য কোনো বিষয়ে কোনো ব্যক্তি বা মহল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বা অন্য কোনোভাবে গুজব ছড়ানোর চেষ্টা করলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সারাদেশে পর্যাপ্ত লবণ মজুদ আছে বলেও জানানো হয় প্রেসনোটে।

এদিকে, দেশে লবণ উৎপাদন ও বিতরণকারী ৪ কোম্পানি চলছে, লবণের কোনো ঘাটতি নেই। উল্টো বাড়তি লবণ নিয়ে কোম্পানিগুলো ও চাষিরা বিপাকে আছেন।

এসিআই সল্টের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ আলমগীর গণমাধ্যমকে জানান, সরবরাহের কোনো সমস্যা নেই, আমরা একটি পয়সাও দাম বাড়াইনি।

মোল্লা সল্টের মহাব্যবস্থাপক আবদুল মান্নান গণমাধ্যমকে জানান, আমরা দাম বাড়াইনি। সরবরাহ ঠিক আছে।

কনফিডেন্স সল্টের মহাব্যবস্থাপক মো. সামসুদ্দিন গণমাধ্যমকে জানান, ঘাটতি তো নেই-ই, উল্টো বিক্রি কম। এর কারণ শুল্কমুক্ত বন্ডের লবণ বাজারে চলে আসছে।

শিল্প মন্ত্রণালয় এক বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, দেশে বর্তমানে সাড়ে ৬ লাখ মেট্রিক টনের বেশি ভোজ্যলবণ মজুদ রয়েছে। এর মধ্যে কক্সবাজার ও চট্টগ্রামের লবণচাষিদের কাছে ৪ লাখ ৫ হাজার মেট্রিক টন এবং বিভিন্ন লবণ মিলের গুদামে ২ লাখ ৪৫ হাজার মেট্রিক টন লবণ মজুদ রয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, দেশে প্রতি মাসে ভোজ্যলবণের চাহিদা কমবেশি ১ লাখ মেট্রিক টন। অন্যদিকে, লবণের মজুত আছে সাড়ে ৬ লাখ মেট্রিক টন।

আরএম/ এফসি

আরও পড়ুন