• ঢাকা
  • রবিবার, ০৫ এপ্রিল, ২০২০, ২১ চৈত্র ১৪২৬
প্রকাশিত: ডিসেম্বর ১৩, ২০১৯, ০২:১৮ এএম
সর্বশেষ আপডেট : ডিসেম্বর ১৩, ২০১৯, ০২:২৪ এএম

এনআরসি অস্থিরতা, কূটনীতিকের গাড়িতে হামলা

দুই হেভিওয়েট মন্ত্রীর ভারত সফর বাতিল

হালিম মোহাম্মদ
দুই হেভিওয়েট মন্ত্রীর ভারত সফর বাতিল

এআরসি ইস্যুতে সৃষ্ট ভারতের একাধিক রাজ্যে সহিংসতা, অস্থিরতা ও বিক্ষোভের জেরে যে কোনো অনাকাঙ্খিত পরিস্থিতি এড়াতে, দেশটিতে নিজ নিজ পূর্ব নির্ধারিত সফর বাতিল ঘোষণা করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

এদিকে বুধবার (১১ ডিসেম্বর) গৌহাটিতে ভারতে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাসে কর্তব্যরত সহকারী হাইকমিশনারের গাড়িতে বিক্ষোভকারীদের হামলার ঘটনায় যে কোনো প্রকার অনাকাঙ্খিত পরিস্থিতি সৃষ্টির সম্ভাবনা, দুই মন্ত্রীর সফর বাতিলের সিদ্ধান্তকে প্রাসঙ্গিক করে তোলে।

এ ঘটনায় গতকাল বৃহস্পতিবার (১২ ডিসেম্বর) ঢাকায় নিযুক্ত ভারতের রাষ্ট্রদূতকে ডেকে প্রতিবাদ জানিয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

এদিকে সংশ্লিষ্ট দুই মন্ত্রনালয় সূত্র বলেছে, বৃহস্পতিবার দুপুরে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর আকস্মিক সফর বাতিলের ঘোষণার পর একই দিন সন্ধ্যায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামালও তার নির্হারিত ভারত সফর বাতিলের ঘোষণা দেন। 

পৃথক দুই মন্ত্রণালয়ের একাধিক সচিব ও সংশ্লিষ্ট পর্যায়ের সূত্র মন্ত্রীদ্বয়ের সফর বাতিলের তথ্য নিশ্চিত করেছে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, ষষ্ঠ ইন্ডিয়ান ওশান ডায়ালগে অংশ নিতে বৃহস্পতিবার ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্করের বিশেষ আমন্ত্রণে বিকালেই নয়া দিল্লির উদ্দ্যেশে ঢাকা ছাড়ার কথা ছিল পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল মোমেনের। কিন্তু এদিন দুপুরেই নিজের এই সফর কর্মসূচী বাতিলের ঘোষণা দেন মন্ত্রী।

অপরদিকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণায় সূত্র জানিয়েছে, ভারতের মেঘালয় রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী কনরাড সাংমার আমন্ত্রণে শুক্রবার (১৩ ডিসেম্বর) সকাল ১১টায় সিলেটের তামাবিল হয়ে মেঘালয়ে যাওয়ার কথা ছিল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর। কিন্তু বৃহস্পতিবার রাতেই স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা শরীফ মাহমুদ অপু গণমাধ্যমকে জানান, মাননীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, মন্ত্রীর এপিএস ও জনসংযোগ কর্মকর্তা এবং একজন সংসদ সদস্যের একটি দল  ভারতের মেঘালয় রাজ্য সফরে যাওয়ার কথা ছিল। তবে প্রাসঙ্গিক কারনে মন্ত্রী তার  নির্ধারিত সফর বাতিল করেছেন।

এনআরসি ইস্যুতে বিক্ষোভে উত্তলা ভারত- ছবি সংগৃহিত

তিনি জানান, পরবর্তীতে উপযুক্ত সময়ে মেঘালয় যাবেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। সফরকালীন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক কয়েকটি অনুষ্ঠানে অংশ গ্রহণের কথা ছিল বলে জানান অপু। তবে সফর বাতিলের কারণ হিসেবে নির্দিষ্ট কোনো কারণ উল্লেখ করা হয়নি।

ভারতের লোকসভার পর রাজ্যসভাতেও পাস হয়েছে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল (সিএবি)। তা নিয়ে বিক্ষোভের মাত্রা বাড়ছে আসাম, ত্রিপুরাসহ উত্তর-পূর্ব ভারতের রাজ্যগুলিতে। এরমধ্যে ভারতে নাগরিকত্ব আইন সংশোধন নিয়ে সহিংস বিক্ষোভ ও অস্থিরতা শুরু হয়। আনন্দবাজারের খবর, বিলের জেরেই আচমকা ভারত সফর বাতিল করলেন আব্দুল মোমেন। তবে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সফর বাতিল নিয়ে বাংলাদেশ এখনো আনুষ্ঠানিক কোনো মন্তব্য করেনি।

 বাংলাদেশি কূটনীতিকের গাড়িতে হামলা

এদিকে গৌহাটিতে বাংলাদেশ দূতাবাসে কর্তব্যরত সহকারী হাইকমিশনারের গাড়িতে বিক্ষোভকারীদের হামলার ঘটনায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় পক্ষ থেকে প্রকাশিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ভারতের রাষ্ট্রদূত রীভা গাঙ্গুলীকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে ডেকে পাঠানো হয়। পরে ভারপ্রাপ্ত পররাষ্ট্র সচিব কামরুল আহসান ভারতে নিযুক্ত বাংলাদেশ দূতবাসের সহকারী হাইকমিশনারের গাড়িতে হামলার প্রতিবাদ জানান। 

এছাড়া সচিব গৌহাটিতে বাংলাদেশ মিশন এবং সেখানে কর্মরতদের সুরক্ষা দেওয়ার ব্যাপারে জোর আহ্বান জানান। জবাবে বাংলাদেশে কর্তব্যরত ভারতীয় হাইকমিশনার রীভা গাঙ্গুলী গৌহাটিতে বাংলাদেশ মিশন এবং সেখানে কর্মরতদের পর্যাপ্ত নিরাপত্তা নিশ্চিত করার ব্যাপারে সচিবকে আশ্বস্ত করেন।

প্রসঙ্গত, ভারতে নাগরিকত্ব বিল পাসের পর থেকে আসামসহ কয়েকটি রাজ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। এ অবস্থায় গত বুধবার অ্যাসিসট্যান্ট হাইকমিশনার বিমানবন্দর থেকে গৌহাটিতে পৌঁছানোর সময় উত্তেজিত জনতা তার গাড়িতে হামলা করে। বাংলাদেশ মিশনের ৩০ গজের মধ্যে স্থাপিত দুটি দিকনির্দেশক নিশানাও (সাইনপোস্ট) ভাংচুর করে উত্তেজিত লোকজন।

এইচএম/এসকে

আরও পড়ুন