• ঢাকা
  • বুধবার, ০৩ জুন, ২০২০, ১৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
প্রকাশিত: মার্চ ২৪, ২০২০, ০৬:০৯ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : মার্চ ২৪, ২০২০, ০৬:০৯ পিএম

বিচ্ছিন্ন হচ্ছে সব জনপদ

লকডাউনের পথে বাংলাদেশ

জাগরণ ডেস্ক
লকডাউনের পথে বাংলাদেশ
প্রতীকী ছবি

অন্যান্য জেলা থেকে বিচ্ছিন্ন করা হচ্ছে রাজধানী ঢাকাকে। 

মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) থেকে বাংলাদেশের সব জেলার সাথে রাজধানী ঢাকার ট্রেন, বিমান ও নৌযান চলাচল বন্ধ হচ্ছে। রাত ১২ টা থেকে অভ্যন্তরীণ সব রুটে বিমান চলাচল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

বিবিসি বাংলাকে এ খবর জানিয়েছেন বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের জনসংযোগ কর্মকর্তা তানভীর আহমেদ।

এর আগে রাজধানীতে সংবাদ সম্মেলনে সব ধরনের যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল বন্ধের ঘোষণা দেন রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম। 

তিনি বলেন, পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত এই সিদ্ধান্ত কার্যকর থাকবে।

এরই মধ্যে যেসব ট্রেনগুলো বেজ স্টেশন থেকে ছেড়ে এসেছে সেগুলো আবার ফিরে যাবে।

সেসময় যাত্রী পরিবহন করা হবে কিনা এমন প্রশ্নে রেলমন্ত্রী বলেন, যদিও আমরা পরিবহনের উদ্দেশে পরিচালনা করছি না, তবে ফিরে যাওয়ার উদ্দেশে কেউ ট্রেনে উঠে বসলে সেটা ভিন্ন বিষয়।

তবে পণ্য পরিবহনের জন্য মালবাহী ট্রেনগুলো চলাচল করবে বলেও জানান তিনি।

এর আগে মঙ্গলবার থেকে সারাদেশে নৌপথে লঞ্চ, ছোট নৌকাসহ সব ধরনের যাত্রীবাহী নৌযান চলাচল বন্ধ ঘোষণা করা হয়। নৌ পরিবহনমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী এ কথা নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, যাত্রীবাহী নৌযান না চললেও পণ্যবাহী নৌযানগুলো চলাচল করবে।

এর আগে সকালে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় এক বিজ্ঞপ্তিতে জানান হয়, বাংলাদেশে সব ধরনের গণপরিবহন বৃহস্পতিবার (২৬ মার্চ) থেকে ‘লকডাউন’ করা হবে। বাংলাদেশের কোনও সড়কে কোনও রকম যাত্রীবাহী যানবাহন চলাচল করবে না। এই লকডাউন কার্যকর থাকবে পরবর্তী ১০ দিন।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতেই এই পদক্ষেপ নেয়ার কথা জানান হয় বিজ্ঞপ্তিতে।

তবে লকডাউন উপেক্ষা করেই সোমবার ছুটি ঘোষণার পর রাজধানী ঢাকা ছেড়েছেন অনেকেই। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ট্রেন স্টেশন ও বাস স্টেশনে মানুষের ভিড়ের ছবিও ছড়িয়ে পড়ে।

এসএমএম