• ঢাকা
  • শনিবার, ৩০ মে, ২০২০, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
প্রকাশিত: মার্চ ২৯, ২০২০, ১১:০৩ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : মার্চ ২৯, ২০২০, ১১:১৮ পিএম

জনতার জয় : শুরু হয়েছে আকিজের হাসপাতাল নির্মাণ

জাগরণ ডেস্ক
জনতার জয় : শুরু হয়েছে আকিজের হাসপাতাল নির্মাণ

ঢাকা উত্তর সিটির ২৪ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর শফিউদ্দিন শফি ও তার সমর্থকদের বাধার মুখে পড়লেও জনগণ ও গণ্যমাধ্যমের দুর্বার প্রতিরোধের কাছে মাথা নত করতে বাধ্য হয়েছে সেই অপচেষ্টা। জনগণের দাবিকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে তাই করোনা আক্রান্ত রোগীদের জন্য আকিজ গ্রুপের হাসপাতাল নির্মাণের কাজ পুনরায় চালুর ব্যাপারে সর্বাত্মক সহযোগিতা নিশ্চিতে তৎপর হয়েছে সরকার। শুরু হচ্ছে ক্রান্তিলগ্নে এই মহৎ উদ্যোগ সফল করার কাজ।

স্থানীয় কাউন্সিলর ও তার সমর্থকদের বাধার মুখে পড়লেও পুলিশের সহযোগিতায় আকিজ গ্রুপের নেয়া করোনা রোগীদের চিকিৎসায় নির্মিতব্য ৩শ' শয্যার অস্থায়ী হাসপাতালের কাজ আবার চালু হয়েছে পূর্ণদ্যোমে।

প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান শেখ নাসির উদ্দিন জানিয়েছেন, এমন একটি মহৎ কাজে বাধা আসা দুঃখজনক। যেখানে হাসপাতালটি নির্মাণ হচ্ছে তার আশপাশে বাসা-বাড়ি বা জনবসতি না থাকায় করোনা রোগীদের নিয়ে তাদের শঙ্কা অমূলক। সরেজমিন পর্যবেক্ষণ করেও পাওয়া গেছে এই তথ্যের সত্যতা। নির্বিঘ্নে হাসপাতালের কাজ এগিয়ে নিতে এর বাধা অপসরাণের মতই সর্বস্তরের মানুষের সহযোগিতা অব্যাহত রাখার আহ্বান জানিয়েছে আকিজ গ্রুপ।

এর আগে, করোনাভাইরাসের আক্রান্ত রোগীদের জন্য রাজধানীর তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল এলাকায় হাসপাতাল নির্মাণের খবর শুনে বাধা স্থানীয় জনগণ বাধা প্রদান করেছে বলে খবর রটে। ঘটনা অনুসন্ধানে, এর পেছনে স্থানীয় কাউন্সিলর ও তার সমর্থকদের সম্পৃক্ততার কথা জানা যায়। কাউন্সিলর তার সমর্থকদের নিয়ে বিক্ষোভ করলে জমির মালিকানার সাইনবোর্ডের নিচে তাৎক্ষণিকভাবে 'কাজ বন্ধ ঘোষণা করা হলো' লেখা নোটিশ টানিয়ে দেয় আকিজ গ্রুপ। 

এক পর্যায়ে স্থানীয় কাউন্সিলরের এই কাণ্ডজ্ঞানহীন কাজের বিরুদ্ধে সরব হয়ে ওঠে দেশের সচেতন সমাজ ও গণমাধ্যম। যা শেষ পর্যন্ত হাসপাতাল নির্মাণ বন্ধের অপচেষ্টা নস্যাৎ করে দেয়। প্রশাসনের সার্বিক সহযোগিতায় পুনরায় শুরু হয় কাজ।  

প্রসঙ্গত, করোনাআক্রান্ত রোগীদের জন্য চীনের লেইশেনশান হাসপাতালের মতো হাসপাতাল নির্মাণ করছে দেশের খ্যাতনামা কর্পোরেট প্রতিষ্ঠান আকিজ গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শেখ বশির উদ্দিন। এমন খবর গতকাল শুক্রবার থেকেই বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। কিন্তু অপচেষ্টাকারীদের চাপের মুখে তা বন্ধ হয়ে যায়। পরে দেশের মানুষ একযোগে সরব হয়ে ওঠলে পিধু হটে তারা।

এসকে