• ঢাকা
  • বুধবার, ০১ ডিসেম্বর, ২০২১, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮
প্রকাশিত: অক্টোবর ১৬, ২০২১, ১২:০৬ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : অক্টোবর ১৬, ২০২১, ০৬:০৬ এএম

রাজারবাগ পীরের নাম ভাঙিয়ে বিত্তশালী অনেক মুরিদ

রাজারবাগ পীরের নাম ভাঙিয়ে বিত্তশালী অনেক মুরিদ
সংগৃহীত ছবি

রাজারবাগ দরবার শরীফের নাম ভাঙিয়ে বিত্তশালী হয়ে উঠেছেন অনেক মুরিদ। এমন অভিযোগই উঠেছে রাজারবাগ দরবার শরীফের অনুসারীদের নামে। দেশের বিভিন্ন জায়গায় শত শত একর জমি দখল করে ভোগ করছেন তারা।

শুধু কক্সবাজার, বান্দরবন, খাগড়াছড়িতেই তাদের দখলকৃত জমির পরিমাণ তিন হাজার একরেরও বেশি।

তেমনই একজন শাকেরুল কবির, চলেন দামি গাড়িতে। রাত-বিরাতে যাতায়াত তারকা হোটেলে। মাঝেমধ্যে দেখা যায় দেশের বিভিন্ন আদালতে। অথচ দশ বছর আগেও এক বাসায় কাজ করে জীবনধারণ করতেন তিনি। আজ সেই মনিবের কারখানারই মালিক বনে গেছেন শাকেরুল। জোর করে দখল করে ভোগ করছেন। আর এসবই করেছেন রাজারবাগ দরবার শরীফের নাম ভাঙিয়ে।

তবে একই পীরের শিষ্য হয়েও আনিস মৌলভীর ধারের কাছে পৌছাতে পারেনি শাকেরুল। কক্সবাজার, বান্দরবানে স্থানীয়ভাবে লাদেন নামে পরিচিত এই আনিস হুজুর।

দরবার শরীফের নাম ভাঙিয়ে পাহাড়িদের কাছ থেকে হাতিয়ে নিয়েছেন শত শত একর জমি। প্রতিবাদ করলেই দেয়া হতো মামলা।

পীরের মুখপাত্র হিসেবে পরিচিত মাহবুব আলম আরিফ, মফিজুর ইসলামও দরবার শরীফের নাম ভাঙিয়ে গড়েছেন সহায় সম্পদ। পিছিয়ে নেই খোদ পীর দিল্লুর রহমানও।

মানবাধিকার কমিশনের তদন্তে এসব সম্পদ অর্জনের উৎস জানার সুপারিশ করা হয়েছে । সম্প্রতি হাইকোর্টও রাজারবাগ দরবার শরীফের সম্পদ অনুসন্ধানে দুদককে নির্দেশ দিয়েছে। এরই মধ্যে কাজ শুরু করেছে সংস্থাটি। তবে রাজারবাগ দরবার শরীফের দাবি এসব তাদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র।

মামলাকে হাতিয়ার বানিয়ে এই সিন্ডিকেট প্রচুর অর্থ সম্পদের মালিক হয়েছে বলে অনেকদিন ধরেই অভিযোগ করে আসছে ভুক্তভোগীরা।

জাগরণ/এমএ