• ঢাকা
  • রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর, ২০২২, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
প্রকাশিত: অক্টোবর ৪, ২০২২, ১২:১১ এএম
সর্বশেষ আপডেট : অক্টোবর ৩, ২০২২, ০৬:১১ পিএম

‘আঙুলের ছাপ না মেলাদের ১ শতাংশ ভোট দিতে পারবে’

‘আঙুলের ছাপ না মেলাদের ১ শতাংশ ভোট দিতে পারবে’
প্রতীকী ছবি

আঙুলের ছাপ না মিললেও কোনও কেন্দ্রের এক শতাংশ ভোটারকে ভোট দেয়ার অনুমতির বিধান স্থায়ী করা হচ্ছে। তবে এর অতিরিক্ত একজনকেও ভোটের অনুমতি দেয়া যাবে না। এমন বিধান রেখে আরপিও সংশোধনের প্রস্তাব করেছে নির্বাচন কমিশন। শিগগিরই এই প্রস্তাব আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হবে।

ইভিএমে নানা কারণে অনেক ভোটারের আঙুলের ছাপ মেলে না। এমন পরিস্থিতিতে সহকারী প্রিসাইডিং কর্মকর্তা তার আঙুলের ছাপ দিয়ে কোনও ভোটারকে ভোট দেয়ার অনুমতি দিতে পারেন। তবে নির্বাচনি কর্মকর্তার এমন ক্ষমতার অপব্যহারের অভিযোগ আছে।

একজন কর্মকর্তা সর্বোচ্চ কতজন ভোটারের জন্য এই কাজটি করতে পারবেন তা আইনে নির্দিষ্ট করে দেয়া ছিলো না। ভোটের আগে এক শতাংশ অনুমতি দেয়ার ক্ষমতা পরিপত্র জারি করে জানিয়ে দিত কমিশন। এবার নির্বাচন কমিশন সিদ্ধান্ত নিয়েছে এক শতাংশ ভোট দেয়ার অনুমতি স্থায়ীভাবে আরপিওতে রাখা হবে।

আঙুলের ছাপ না মিললেও এক শতাংশের অতিরিক্ত কোনো ভোটারকে অনুমতি দেয়ার ক্ষমতা বাতিল করা হচ্ছে সংশোধনীতে। আগামী জাতীয় নির্বাচনের আগে সব ভোটারের ১০ আঙুলের ছাপ নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইসি। ফলে আঙ্গুলের ছাপ নিয়ে কোনো সংকট হবে না বলে আশা করছে কমিশন।

ইভিএম ভোট নিয়ে নানা অভিযোগ থাকলেও, আগামী সংসদ নির্বাচন সর্বোচ্চ দেড়শো আসনে ইভিএমে ভোটগ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

জাগরণ/জাতীয়নির্বাচন/এসএসকে