• ঢাকা
  • শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর, ২০১৯, ১ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬
প্রকাশিত: অক্টোবর ২৩, ২০১৯, ০৯:৩৪ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : অক্টোবর ২৩, ২০১৯, ০৯:৩৪ পিএম

বগুড়ায় চিরকুট লিখে যুবকের আত্মহত্যা

বগুড়া সংবাদদাতা
বগুড়ায় চিরকুট লিখে যুবকের আত্মহত্যা
নিহত সুজন মিয়া - ছবি : জাগরণ

বগুড়ার ধুনটে সুজন মিয়া (১৮) নামের এক যুবক আত্মহত্যা করেছেন। মঙ্গলবার (২২ অক্টোবর) সকাল ৮টার দিকে বগুড়া তিনমাথা রেলগেটে ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে তিনি আত্মহত্যা করেন। নিহত সুজন মিয়া কালেরপাড়া ইউনিয়নের উত্তর কান্তনগর গ্রামের মংলা প্রামাণিকের ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নিহত সুজন মিয়া মঙ্গলবার সকালে বাড়ি থেকে নিখোঁজ হন। নিখোঁজ হওয়ার পরে তার বিছানার পাশে একটি চিরকুট দেখতে পান স্বজনরা। চিরকুটে লেখা ছিল : ‘আমি মো. সবুজ মিয়া, বাবার নাম মংলা প্রাং। আমার শারীরিক অসুস্থতার কারণে আমি আত্মহত্যা করতেছি। কারণ এ যাবৎ যে টাকা রোজগার করেছি তা আমি ওষুধ খেয়ে শেষ করে দিয়েছি। তাই বাবা-মার আশা যে আমি বা আমাকে বড় করে কোনো দুঃখ দেয়নি। তাই আমি বাবা-মার কাছে অনেক বড় ভাগ্যবান ছেলে। আমার পাড়া-প্রতিবেশী ও আমার নিজের লোক সবার কাছে আমি ক্ষমা বা হাত জোড় করছি আমাকে ক্ষমা করে দেবেন। আর আমার ২ বোন যেন সুখে থাকে। বিদায় বোন/বিদায় মা/বিদায় বাবা।’

চিরকুটের অপর পৃষ্ঠায় লেখা ছিল : ‘আমি মো. সবুজ মিয়া। আমার মতো সুখের জীবন আর কেউ কাটাতে পারবে না। কিন্তু একটি ভুলের কারণে আজ আমাকে মারা যেতে হচ্ছে। তাই সরকারি আইন আমার বাবা-মার কোনো শাস্তি বা দণ্ড দিতে পারিবে না। কারণ এটা আমার ভুল। সবাই সুখে থাকিবেন, বিদায়।’

মঙ্গলবার বগুড়ার তিনমাথা রেলগেটে তিনি ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করেন। পরে রেলওয়ে পুলিশ তার খণ্ড-বিখণ্ড লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

এদিকে ট্রেনে ঝাঁপ দিয়ে অজ্ঞাত যুবকের আত্মহত্যার খবর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে নিখোঁজ সুজনের স্বজনরা রেলওয়ে ফাঁড়িতে গিয়ে তার লাশ শনাক্ত করে বাড়িতে নিয়ে আসেন।

বগুড়া মেডিকেল ফাঁড়ির এসআই আব্দুল আজিজ মণ্ডল জানান, বগুড়ার তিনমাথা রেলগেট এলাকায় এক যুবক ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। ময়নাতদন্তের পর তার লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

এনআই

আরও পড়ুন