• ঢাকা
  • সোমবার, ১৯ আগস্ট, ২০১৯, ৪ ভাদ্র ১৪২৬
Bongosoft Ltd.
প্রকাশিত: আগস্ট ১২, ২০১৯, ০৮:০৯ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : আগস্ট ১২, ২০১৯, ০৮:১০ পিএম

মৌসুমী চামড়া ব্যবসায়ীরা হাওয়া

জাগরণ প্রতিবেদক
মৌসুমী চামড়া ব্যবসায়ীরা হাওয়া
ছবি- দৈনিক জাগরণ

ঢাকায় এবার পবিত্র ঈদুল আজহায় মৌসুমি চামড়া ব্যবসায়ীদের দেখা যায়নি। মাদ্রাসা ও এতিমখানা সংশ্লিষ্টরা বিনা পয়সায় কাঁচা চামড়া সংগ্রহ করেন।

এবার গরুর কাঁচা চামড়ার দাম ঢাকায় নির্ধারণ করা হয়েছে প্রতি বর্গফুট ৪৫ থেকে ৫০ টাকা। ঢাকার বাইরে ৩৫ থেকে ৪০ টাকা। সারাদেশে খাসির চামড়ার দাম নির্ধারণ করা হয়েছে প্রতি বর্গফুট ১৮ থেকে ২০ টাকা এবং বকরির চামড়ার দাম নির্ধারণ করা হয় প্রতি বর্গফুট ১৩ থেকে ১৫ টাকা।

ঈদের দিন সোমবার (১২ আগস্ট) সকালে মোহাম্মদপুর, মিরপুর, শ্যামলী, আগারগাঁও এলাকার বিভিন্ন পাড়া-মহল্লা ঘুরে দেখা গেছে, বেশিরভাগ পশুর চামড়া রাস্তায় পড়ে আছে। বেলা ১টা পর্যন্ত পশুর চামড়া কেনার জন্য কেউ আসেননি বলে জানা গেল।

সরকারের নির্ধারণ করে দেওয়া দাম অনুযায়ী, ঢাকায় কোরবানির গরুর প্রতিটি ২০ থেকে ৩৫ বর্গফুট চামড়া লবণ দেওয়ার পরে ৯০০ থেকে ১ হাজার ৭৫০ টাকায় কেনার কথা ট্যানারি মালিকদের।

মোহাম্মদপুর এলাকার মাওলানা জাকির হোসেন তালুকদার বলেন, আমরা দানের কাঁচা চামড়া সংগ্রহ করছি। যেহেতু এবার চামড়ার দাম কমে গেছে।

শ্যামলীর বাসিন্দা মালেক মিয়া বলেন, অন্য বছর সকাল ১০টার মধ্যে মৌসুমী চামড়া ব্যবসায়ীরা চামড়া কিনে থাকেন। কিন্তু এখন ১টা বাজে। এখন পর্যন্ত চামড়া কেনার জন্য কোনও লোকজন আসেননি।

বাংলাদেশ ট্যানার্স অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক সাখাওয়াত উল্লাহ মৌসুমি বলেন, আমরা মৌসুমি ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে সরাসরি চামড়া সংগ্রহ করছি না। তবে যারা লবণ দেবেন, তাদের কাছ থেকে আমরা চামড়া নেবো।

আরএম/এসকে

আরও পড়ুন

Islami Bank
ASUS GLOBAL BRAND