• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১৫ ফাল্গুন ১৪২৬

জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকীর ক্ষণগণনা

মুজিববর্ষ
প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০২০, ০৫:৪৭ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০২০, ০৫:৪৭ পিএম

সিলেটে র‌্যাবের জঙ্গিবিরোধী অভিযান, শাফায়েত আটক

সিলেট অফিস
সিলেটে র‌্যাবের জঙ্গিবিরোধী অভিযান, শাফায়েত আটক
শাফায়েত আহমেদ চৌধুরী

২৯ জানুয়ারি রাজধানী ঢাকায় নিষিদ্ধঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আনসারুল ইসলাম ও আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের সদস্য তিন জঙ্গিকে আটক করে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)-২। তাদের জবানবন্দিতে উঠে আসে সিলেটের এক তরুণের নাম। নগরীর সাগরদিঘীরপার এলাকার একটি ভাড়া বাসায় বসবাসকারী ওই তরুণের নাম শাফায়েত আহমেদ চৌধুরী (১৮)। তিনি জকিগঞ্জ উপজেলার গণিপুর গ্রামের কাওছার আহমদ চৌধুরীর ছেলে। 

সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ইংরেজি বিভাগের ২য় বর্ষে অধ্যয়নরত শাফায়েত পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়েন। মুখভর্তি দাড়ি, পাঞ্জাবি পরেন। অবনত মস্তকে চলাফেরা করা স্বল্পভাষী শাফায়েত জঙ্গিবাদের সঙ্গে জড়িত সেটা ঘুণাক্ষরেও বুঝতে পারেননি তার পরিবারের লোকজন। বাবা কাওছার আহমদ চৌধুরী অবসরপ্রাপ্ত ব্যাংক কর্মকর্তা। বর্তমানে তিনি রয়েছেন তাবলিগের চিল্লায়। 

ঢাকার তিন জঙ্গির কাছ থেকে তথ্য পাওয়ার পর থেকেই শাফায়েতকে নজরদারিতে রেখেছিল আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর একাধিক টিম। শাফায়েতের অবস্থান নিশ্চিত হওয়ার পর বুধবার (১২ ফেব্রুয়ারি) রাত সাড়ে ৮টায় শুরু হয় মূল অপারেশন। সিলেট নগরীর সাগরদিঘীরপার এলাকার মণিপুরীপাড়া সৈয়দপুরি গলির ৭৪/৩ নম্বর বাসায় এশার নামাজ পড়ে প্রবেশ করেন শাফায়েত আহমেদ চৌধুরী। মাত্র ৬ মাস আগে এই বাসায় ওঠেন শাফায়েতের পরিবার। শাফায়েতের মা ও ছোটবোন ডাক্তার দেখানোর জন্য বাসার বাইরে গিয়েছিলেন। এরইমধ্যে পুরো বাসা ঘিরে ফেলে র‌্যাব-২ এর ২০ সদস্যের দল। অপারেশনের নেতৃত্বে ছিলেন র‌্যাব-২ এর কোম্পানি কমান্ডার পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মহিউদ্দিন ফারুকী। তাদের সঙ্গে যোগ দেয় সিলেটের কোতোয়ালি থানার পুলিশ। ২ ঘণ্টা ধরে চলে অভিযান। বহু নাটকীয়তার পর রাত সাড়ে ১০টায় বাসার ভেতর থেকে আটক করা হয় শাফায়েতকে। এসময় তার কাছ থেকে ১৫টি জেহাদি বই, জঙ্গিদের ট্রেনিং ম্যানুয়েল, পাসপোর্ট, একটি মোবাইল, ল্যাপটপসহ বিভিন্ন ধরনের উস্কানিমূলক লিফলেট উদ্ধার করা হয়। 

আশপাশের বাসার লোকজন হতভম্ব। তারা ভাবতেও পারেননি নম্র-ভদ্র, নামাজি ছেলেটির পরিচয় মিলবে ভয়ঙ্কর জঙ্গি হিসেবে।

র‌্যাব জানায়, আটক শাফায়েত আহমেদ চৌধুরী নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন আনসারুল ইসলাম ও আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের সঙ্গে সরাসরি যুক্ত। ঢাকায় আটক ৩ জঙ্গির কাছ থেকে পাওয়া তথ্যমতে তার উপর কড়া নজর রেখেছিল র‌্যাব। তথ্যপ্রযুক্তির মাধ্যমে তার গতিবিধি পর্যবেক্ষণ করে বুধবার অপারেশন চালানো হয়। অভিযানকালে তার ল্যাপটপ ও মোবাইল ফোন তল্লাশি করে জঙ্গিবাদের সঙ্গে জড়িত থাকার সরাসরি প্রমাণ পাওয়া গেছে। ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ, ম্যাসেঞ্জার গ্রুপের মাধ্যমে তারা জঙ্গিবাদের বিস্তৃতি ঘটাচ্ছিল। শাফায়েত সিলেটে বড় ধরনের নাশকতার প্ল্যান করতে চেয়েছিল।

এফসি