• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ০৭ এপ্রিল, ২০২০, ২৪ চৈত্র ১৪২৬
প্রকাশিত: মার্চ ১২, ২০২০, ০৫:৫৪ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : মার্চ ১২, ২০২০, ০৫:৫৬ পিএম

কোভিড-১৯

১০ জেলায় হোম কোয়ারেন্টাইনে ১৮৯ জন

স্বদেশ ডেস্ক
১০ জেলায় হোম কোয়ারেন্টাইনে ১৮৯ জন

দেশের ১০ জেলায় হোম কোয়ারেন্টাইনে আছেন ১৮৯ জন। ১৪২ জনের নমুনা পরীক্ষা করে কারও কোভিড-১৯ শনাক্ত হয়নি। অন্যান্য হাসপাতালে আইসোলেশনে আছেন ৮ জন। আইসোলেশনে থাকা ৩ কোভিড আক্রান্তের দু’জন এরই মধ্যে সুস্থ হয়ে উঠছেন। শিগগিরই তাদের ছাড়পত্র দেয়া হবে। দৈনিক জাগরণ এর সংবাদদাতাদের পাঠানো খবর—

নারায়ণগঞ্জ

৪০ জনকে নিজ নিজ বাসায় কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানে (আইইডিসিআর) ইতালিফেরত জেলার দু’জন চিকিৎসাধীন। তারা এই ৪০ জনের সংস্পর্শে এসেছিলেন। সে কারণেই তাদের কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। তারা নিজ নিজ বাড়িতেই রয়েছেন। তাদের পাশে আইইডিসিআর কর্মকর্তা ছাড়া কাউকে ভিড়তে দেয়া হচ্ছে না।

মঙ্গলবার (১০ মার্চ) বিকেলে নারায়ণগঞ্জ জেলা ১০০ শয্যা হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল সার্জন আসাদুজ্জামান এ তথ্য জানান।

মানিকগঞ্জ

মানিকগঞ্জের বিভিন্ন উপজেলায় বিদেশফেরত ৭৯ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। তাদের শরীরে করোনাভাইরাসের উপসর্গ না থাকলেও সম্প্রতি বিদেশ থেকে আসায় নিজ নিজ বাড়িতে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।

মানিকগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. আনোয়ারুল আমিন আখন্দ বলেন, বিদেশফেরত ৭৯ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। তাদের মধ্যে কারও শরীরে করোনাভাইরাসের উপসর্গ মেলেনি।

কিশোরগঞ্জ

কিশোরগঞ্জের ভৈরব উপজেলায় বিদেশফেরত ৪১ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। তাদের বেশিরভাগই ইতালিফেরত, কয়েকজন এসেছেন সৌদি আরব, জর্ডান ও সিঙ্গাপুর থেকে। তাদের মধ্যে ৩৯ জন পুরুষ ও দু’জন নারী।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কিশোরগঞ্জের সিভিল সার্জন মুজিবর রহমান।

ফেনী

ফেনীতে কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন ১০ জন। কেউ আক্রান্ত না হলেও সদ্য বিদেশফেরত ৯জনকে তাদের নিজ নিজ বাড়িতে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।
বুধবার (১১ মার্চ) বিষয়টি জানিয়েছেন ফেনীর সিভিল সার্জন সাজ্জাদ হোসেন।

 

মাদারীপুর

সম্প্রতি এক ইতালিপ্রবাসী মাদারীপুরে আসেন। পরে তার শরীরে করোনাভাইরাসের বিভিন্ন উপসর্গ দেখা দিলে তিনি সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানকে (আইইডিসিআর) জানান। পরে তাকে ঢাকায় আইসোলেশনে রাখা হয়। একই সঙ্গে তিনি এলাকায় যাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন এমন ২৯ জনকে চিহ্নিত করে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। পাশাপাশি দিল্লিফেরত এক ব্যক্তিকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

মাদারীপুরের সিভিল সার্জন ডা. শফিকুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, জেলায় মোট ৩০ জনকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

যশোর

যশোরের চৌগাছায় ইতালিফেরত এক দম্পতিসহ মোট ছয়জনকে একজন চিকিৎসকের তত্ত্বাবধানে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেন চৌগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কর্মকর্তা লুৎফুন্নাহার।

দিনাজপুর

১৩ দিন আগে চীনফেরত এক শিক্ষার্থী জ্বর-সর্দি ও কাশিতে আক্রান্ত হওয়ায় নাক ও গলার লালার নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। একই সঙ্গে করোনাভাইরাস সন্দেহে তাকে হোম কোয়ারেন্টাইনে নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।

বগুড়া, নরসিংদী, খুলনা, সিলেট, চুয়াডাঙ্গা, ঝিনাইদহ, ফরিদপুর, জামালপুর, নোয়াখালীসহ আরও ১৯ জনকে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।

এসএমএম