• ঢাকা
  • রবিবার, ১৭ জানুয়ারি, ২০২১, ৪ মাঘ ১৪২৭
প্রকাশিত: জানুয়ারি ১৩, ২০২১, ০৫:৫০ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : জানুয়ারি ১৩, ২০২১, ০৫:৫০ পিএম

সম্পত্তির বিরোধে ব্যবসায়ী খুন

বগুড়া প্রতিনিধি
সম্পত্তির বিরোধে ব্যবসায়ী খুন

বগুড়ায় সম্পত্তি ও টাকা নিয়ে বিরোধের জের ধরে পরিবারের সদস্যদের হাতে খুন হয়েছেন ব্যবসায়ী ফরিদুল ইসলাম (৪৮)। এ ঘটনায় ৫ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

বুধবার (১৩ জানুয়ারি) বেলা ১২টার দিকে বগুড়া পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভূঞা এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান।

গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা হলেন নিহত ফরিদুলের ছোট ভাই জিয়াউর রহমান জিয়া (৪৫), চাচা আব্দুর রাজ্জাক (৫৮), ভাতিজা ফারুক আহম্মেদ (২৫), ভাবী শাপলা খাতুন (৩৫) ও শ্যালক ওমর ফারুক (৩৫)। 

গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা পুলিশের কাছে হত্যাকাণ্ডের দায় স্বীকার করেছেন।

সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভূঞা জানান, নিহত ফরিদুল তার মায়ের সম্পত্তি থেকে ভাই-বোনদের বঞ্চিত করেছেন। এ নিয়ে পরিবারের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। এ কারণে ওমর ফারুক ফরিদুলের ভাই-ভাজিতা ও অন্যদের সঙ্গে খুনের পরিকল্পনা করে। ২৮ ডিসেম্বর ফরিদুলের স্ত্রী-সন্তান ঢাকায় থাকায় সেই সুযোগে ৫ জানুয়ারি তাকে হত্যা করা হয়।

আশরাফ ভূঞা আরো জানান, ৮ জানুয়ারি নিহত ফরিদুলের শ্যালক ওমর ফারুককে অপহরণ করা হয়েছে বলে তার স্ত্রীর কাছে ফোন আসে। এরপর পুলিশ মানিকগঞ্জ থেকে তাকে উদ্ধার করে। পরে পুলিশ জানতে পারে সে নাটক সাজিয়েছে। নিজের দুলাভাইকে খুন করার পর সে বিষণ্ণতায় ভুগছিল। ওমর ফারুকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী বাকি চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। 

৫ জানুয়ারি সন্ধ্যা ৭টায় শেরপুর থানায় ইতালি গ্রামে নিজ বাড়িতে খুন হন ব্যবসায়ী ফরিদুল ইসলাম। এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী ইসমত আরা বাদী হয়ে অজ্ঞাত আসামিদের নামে শেরপুর থানায় হত্যা মামলা করেন।