• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ০৪ মার্চ, ২০২১, ২০ ফাল্গুন ১৪২৭
প্রকাশিত: জানুয়ারি ২৪, ২০২১, ০৯:০৯ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : জানুয়ারি ২৪, ২০২১, ০৯:০৯ পিএম

প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যানে কর্মচারীকে ধর্ষণের অভিযোগ

প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যানে কর্মচারীকে ধর্ষণের অভিযোগ

গাজীপুরে এক নারী কর্মচারীকে ধর্ষণের অভিযোগে ঔষধ কারখানার মালিক আওলাদ হোসেনকে (৪৫) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। কোনাবাড়ী থানার ওসি আবু সিদ্দিক জানান, ভুক্তভোগী নারী গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের কোনাবাড়ি এলাকার ভাড়া বাসায় থাকেন। তার বাড়ি কুড়িগ্রামে। অভিযুক্ত আওলাদ হোসেন ওই নারীকে তার মালিকানাধীন রনু মার্কেটের চতুর্থ তলার আরগন ফার্মাসিটিক্যাল লিমিটেডে চাকুরি দেন।

শুরুতেই ওই নারীকে প্রেমের প্রস্তাব দেন আওলাদ। কিন্তু সেই নারী তার প্রস্তাব প্রত্যাখান করেন। পরবর্তীতে কয়েক বছর ধরে বিভিন্ন স্থানে ঘুরতে নিয়ে তাকে ভয় দেখিয়ে ধর্ষণ করে আওলাদ। একসময় অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েন ভুক্তভোগী। বর্তমানে ৯ মাসের অন্তঃসত্ত্বা সে।

সর্বশেষ গত শুক্রবারও আওলাদ তার অফিস কক্ষে নিয়ে ওই নারীকে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ করা হয়েছে। বিষয়টি অফিসের অন্যান্যদের জানানো হলেও কোন সুরাহা হয়নি। 

এমন অবস্থায় ভুক্তভোগী নিজেই বাদী হয়ে আওলাদ হোসেনকে আসামী করে থানায় মামলা দায়ের করেন। শনিবার আওলাদ হোসেনকে তার বাসা থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

গাজীপুর মেটোপলিটন পুলিশ (জিএমপি’র) কোনাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু সিদ্দিক জানান, পুলিশ আওলাদ হোসেনকে গ্রেফতার করে রবিবার আদালতে প্রেরণ করেছে। এ ঘটনায় তদন্ত চলছে। 

গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের কোনাবাড়ির আমবাগ সড়ক মোড় এলাকার মৃত রমজান আলীর ছেলে আওলাদ হোসেন। স্থানীয় আরগান ফার্মাসিটিক্যাল কারখানার ও কোনাবাড়ির রনু মাকের্টের মালিক তিনি।