• ঢাকা
  • শনিবার, ১০ এপ্রিল, ২০২১, ২৭ চৈত্র ১৪২৭
প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২১, ১০:৫৭ এএম
সর্বশেষ আপডেট : ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২১, ১১:০২ এএম

‘‍‍খালেদা জিয়া মানুষের প্রাণ নিয়ে তামাশা করেছেন‍‍’

‘‍‍খালেদা জিয়া মানুষের প্রাণ নিয়ে তামাশা করেছেন‍‍’

বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. মাইনুল হোসেন খান নিখিল বলেছেন, “বিএনপি-জামায়াত নির্বাচন করতে আসেনি। নির্বাচনের নামে তারা ষড়যন্ত্র করার চেষ্টা করছে।”

বুধবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে লক্ষ্মীপুর রায়পুর পৌর শহরের বাস টার্মিনাল প্রাঙ্গণে জেলা যুবলীগের আয়োজিত নির্বাচনী পথসভা প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপি-জামায়াতের উদ্দেশ করে তিনি বলেন, “রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার আমলে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে না বলে ঘোষণা  দিয়েছিল বিএনপি-জামায়াত। সে ঘোষণা দিয়ে তারা আন্দোলনের নামে সারা দেশে হরতাল-অবরোধ করে তাণ্ডবলীলা চালায়। শিশু-বৃদ্ধ কেউ রক্ষা পায়নি। একের পর এক পেট্রলবোমা মেরে ১৬৫ জন সাধারণ মানুষ পুড়িয়ে মেরেছে। আন্দোলনের নামে খালেদা জিয়া বাংলার মানুষের প্রাণ নিয়ে তামাশা করেছেন। তারা আবার নির্বাচনে অংশ নিয়ে ক্ষমতায় আসতে চান।” 

বিএনপির প্রার্থী-কর্মীদের উদ্দেশে তিনি হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, “পৌর নির্বাচনে এ অঞ্চলে ভোট চাওয়ার আগে পেট্রলবোমায় নিহত ওই নিরীহ মৃত ১৬৫ প্রাণ জীবিত করে দিতে হবে। তার আগে প্রকাশ্যে ভোট চাইতে পারবেন না বিএনপি-জামায়াতের কর্মীরা।”

তিনি আরো বলেন, “ইসলামে মানুষ পুড়িয়ে হত্যা করা মহা পাপ বলা হয়েছে, কিন্তু খালেদা জিয়া দেশের মানুষকে পুড়িয়ে হত্যা করছে। তারা দেশ ও দেশের মানুষকে ভালোবাসে না। এ সমাবেশ থেকে বলতে চাই বাংলাদেশের মাটিতে রাজনীতি করার কোনো অধিকার বিএনপি-জামায়াতের নেই।”

তিনি যুবলীগের নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে বলেন, “যুবলীগের নেতা-কর্মীরা ঐক্যবদ্ধ থাকলে রায়পুর পৌরসভা নির্বাচনে নৌকা প্রতিকের মনোনীত প্রার্থী গিয়াস উদ্দিন রুবেল বাটের বিজয় নিশ্চিত হবে।”

বিএনপি-জামায়াতকে প্রতিহত করতে দলীয় নেতা-কর্মীদের একসঙ্গে কাজ করার আহ্বান জানান তিনি।

জেলা যুবলীগের সভাপতি এ কে এম সালাহ উদ্দিন টিপুর সভাপতিত্বে এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম ফারুক পিংকু, সাধারণ সম্পাদক নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়ন, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সদস্য মোহাম্মদ আলী খোকন, কেন্দ্রীয় যুবলীগের মনজুরুল আলম শাহীন, হাবিবুর রহমান পবন, মোজাম্মেল হোসেন, কেন্দ্রীয় যুবলীগের মহিলাবিষয়ক সম্পাদক মুক্তা আক্তার, উপপরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক শামছুল ইসলাম পাটোয়ারী, সহসম্পাদক জয়নাল আবেদিন চৌধুরী রিগ্যান, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক নেতা নজরুল ইসলাম ভুলু ও চৌধুরী মাহমুদুন্নবী সোহেল।