• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ২০ এপ্রিল, ২০২১, ৭ বৈশাখ ১৪২৮
প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২১, ১২:৪১ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২১, ১২:৪১ পিএম

ঘর না হাসপাতাল নির্মাণ, দ্বন্দ্বে গ্রামবাসী

ঘর না  হাসপাতাল নির্মাণ, দ্বন্দ্বে গ্রামবাসী

কুমিল্লার দাউদকান্দিতে পরিত্যক্ত জায়গায় হাসপাতাল নির্মাণ নাকি ভূমিহীনদের জন্য আশ্রায়ন প্রকল্পের ঘর নির্মাণ হবে এ নিয়ে গ্রামবাসীদের মধ্যে টান টান উত্তেজনা চলছে।

বৃহস্পতিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, উপজেলার মারুকা ইউনিয়নের স্বপাড়া গ্রামে স্বপাড়া মৌজার ১ একর ১ শতক পরিত্যক্ত জায়গা রয়েছে। রেকর্ডে গিরিশ চন্দ্র সেন জায়গাটির মালিক থাকা অবস্থায় ১০ শতক ভূমিতে ইউনিয়ন উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্র নির্মিত হয়। যা এখন ভীষণ রকমের জরাজীর্ণ অবস্থায় রয়েছে।

মুক্তিযুদ্ধের পর থেকে গিরিশ চন্দ্র সেনের কোন ওয়ারিশ এখানে না থাকায় বাকি কিছু অংশ ভূমি স্থানীয়দের দখলে চলে যায়। এদিকে একই ভূমির বাকি অংশে আশ্রায়ন প্রকল্প-২ এর আওতায় ভূমিহীনদের জন্য ঘর নির্মাণের উদ্যোগ নেয় উপজেলা প্রশাসন। 

গত ১৩ ফেব্রুয়ারি স্থানীয়দের মধ্যে এ নিয়ে মারামারিও হয়। 

এদিকে ২২ ফেব্রুয়ারি তারিখেও "হাসপাতাল চাই অন্যকিছু নয়" ব্যানারে মানববন্ধন করে কিছু লোকজন।

স্থানীয় তহসিলদার নাজমুল হক জানান, স্বপাড়া মৌজার ১৫৪ নং খতিয়ানে ১০১ শতক ভূমির কিছু অংশে স্বাস্থ্য কেন্দ্রটি রয়েছে। জায়গাটি গিরিশ চন্দ্র সেন নামের এক ব্যক্তির নামে রেকর্ড থাকলেও মুক্তিযুদ্ধের পর থেকে তার কোন ওয়ারিশ এখানে নেই বলে স্থানীয়দের মাধ্যমে জানা যায়। 

এদিকে ইউপি চেয়ারম্যান খলিল তালুকদার বলেন, "ভূমিহীনদের জন্য ঘর নির্মাণে বাঁধা দিয়ে সরকার বিরোধী একটি মহল পরিবেশ নষ্ট করার চেষ্টা করছে।"

এ বিষয়ে উপজেলা সহকারী কমিশনার(ভূমি) মোহাম্মদ সেলিম শেখ বলেন, "হাসপাতালের জায়গাটি ছাড়া বাকি অংশটুকু অনেকেই দখল করে রেখেছে। ভূমিহীনদের ঘর নির্মাণ করতে গেলে দখল ছাড়তে হবে - তাই হয়তো ভিন্ন কৌশলে আন্দোলন করার চেষ্টা করছে দখলদাররা। এখানে হাসপাতালের জায়গা রেখেই ভূমিহীনদের জন্য ঘর নির্মাণ করা হবে।"