• ঢাকা
  • বুধবার, ০১ ডিসেম্বর, ২০২১, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮
প্রকাশিত: অক্টোবর ১৭, ২০২১, ১২:০৪ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : অক্টোবর ১৭, ২০২১, ০৬:০৪ এএম

কুমিল্লায় মূল হোতারা অধরা

কুমিল্লায় মূল হোতারা অধরা

কুমিল্লার ঘটনার তিন দিন অতিবাহিত হলেও এর মূল হোতা এখনও শনাক্ত কিংবা গ্রেফতার হয়নি।  এসব ঘটনা নিয়ে ৩টি থানায় করা ৭টি মামলায় ৪৩ জন আসামি বর্তমানে কারাগারে রয়েছে।

মণ্ডপের ঘটনায় জড়িতদের শনাক্ত ও গ্রেফতারের দাবি জানিয়ে শনিবার (১৬ অক্টোবর) নগরীর কান্দিরপাড় পূবালী চত্বরে মানববন্ধন, বিক্ষোভ ও অবস্থান ধর্মঘট পালন করেছে জেলা পূজা উদযাপন কমিটি। পাশাপাশি সম্প্রীতি সমাবেশ করেছে সম্মিলিত নাগরিক উদ্যোগ।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক পুলিশের দায়িত্বশীল সূত্র জানায়, সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে সতর্কতার সঙ্গে কুমিল্লার বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে। পূজামণ্ডপে ন্যক্কারজনক ঘটনায় জড়িত ব্যক্তিকে শিগগিরই শনাক্ত ও গ্রেফতার করা সম্ভব হবে বলে ওই সূত্র দাবি করেছে।

কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি আনওয়ারুল আজিম বলেন, তদন্ত চলছে। গ্রেফতারদের মধ্যে কয়েকজনকে রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। রোববার (১৭ অক্টোবর) থেকে এ প্রক্রিয়া শুরু হতে পারে।

চকরিয়া-পেকুয়ায় ৪ মামলা

চকরিয়া ও পেকুয়া উপজেলায় মন্দিরে সহিংসতার ঘটনায় চকরিয়ায় একটি ও পেকুয়ায় তিনটি মামলা হয়েছে। এসব মামলায় ৫১ জনের নাম উল্লেখসহ এক হাজার ৩৫১ অজ্ঞাত ব্যক্তিকে আসামি করা হয়েছে।

সাহারবিল ইউনিয়নের শাহাপুরা জলদাসপাড়ায় পূজার জন্য নির্মিত তোরণ ভাঙচুর মামলায় ২০ জনের নাম উল্লেখ এবং অজ্ঞাত ৩০০ জনকে মামলায় আসামি করা হয়।

পেকুয়া উপজেলা সদর, মগনামা ও শিলখালীর ঘটনায় তিনটি মামলা হয়েছে। ওই মামলায় সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও বিএনপি নেতা বাহাদুর শাহ্‌ ও পেকুয়া উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান নুরুজ্জামান মঞ্জুসহ ১৭ জনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। অজ্ঞাতনামা আসামি করা হয়েছে ৫০০ জনকে। অপরদিকে মগনামার ঘটনায় করা মামলায় ১৪ জনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। সেখানে অন্যতম আসামি হচ্ছেন সাবেক শিবির নেতা ও সাবেক চেয়ারম্যান শহীদুল মোস্তফা চৌধুরী।

রামগতিতে হামলাকারীদের শনাক্তে কাজ চলছে

লক্ষ্মীপুরের রামগতিতে মন্দিরে হামলা ও অগ্নিসংযোগকারীদের শনাক্তে পুলিশ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। একে কেন্দ্র করে অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে উপজেলার ১২টি মন্দিরে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। রামগতি থানার ওসি মোহাম্মদ সোলাইমান জানান, এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে ২৫০ জনকে আসামি করে মামলা করেছে।

জাগরণ/এমএ