• ঢাকা
  • শুক্রবার, ১৯ জুলাই, ২০১৯, ৪ শ্রাবণ ১৪২৬
Bongosoft Ltd.
প্রকাশিত: এপ্রিল ১৫, ২০১৯, ০৬:১৩ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : এপ্রিল ১৬, ২০১৯, ১২:২২ এএম

দৃষ্টি প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের ৪০তম বিসিএস পরীক্ষা বর্জনের ঘোষণা

ঢাবি প্রতিনিধি 
দৃষ্টি প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের ৪০তম বিসিএস পরীক্ষা বর্জনের ঘোষণা
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীরা -ছবি : জাগরণ

বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশনের (পিএসসি) স্বেচ্ছারিতার অভিযোগ তুলে আগামী ৩ মে অনুষ্ঠেয় ৪০তম বিসিএসের প্রিলিমিনারী পরীক্ষা বর্জনের ঘোষণা দিয়েছেন দৃষ্টি প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীরা। 

সোমবার (১৫ এপ্রিল) দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলন থেকে তারা এ ঘোষণা দেন। এ সময় তারা পিএসসির ‘নোংরা রাজনীতির’ শিকার হয়েছেন বলেও অভিযোগ করেন।

সংবাদ সম্মেলনে কিছু প্রমাণ তুলে ধরে লিখিত বক্তব্যে ‘চাকরি প্রত্যাশী দৃষ্টি প্রতিবন্ধী গ্র্যাজুয়েট পরিষদ’র পক্ষে মো. আলী হোসেন বলেন, কর্ম কমিশন কখনও প্রতিবন্ধী বান্ধব ছিল না। পিএসসি প্রদত্ত শ্রুতি লেখকের ইতোপূর্বে এমন পরীক্ষা দেয়ার অভিজ্ঞতা আছে কি না তা নিশ্চিত নয়।

লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, এমন কাউকে বিসিএসের মত সর্বোচ্চ প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় বসালে তার ফল কখনো ইতিবাচক হতে পারে না। তারা নিজেরা যাতে পাবলিক পরীক্ষায় শ্রুতিলেখক সঙ্গে নিয়ে যেতে পারেন তা দাবি জানানো হয়।

তিনি বলেন, তাকে পিএসসি প্রদত্ত প্রশ্নপত্র ভালোভাবে পাঠও করতে হবে। এছাড়া পিএসসির পরীক্ষায় অতিরিক্ত সময় দেয়া হয় না। ফলে শ্রুতিলেখক সীমিত সময়ের মধ্যে প্রশ্নপত্র পাঠ এবং ওএমরআর পূরণ করতে পারবে কি না তা নিয়ে সংশয় রয়েছে।

পরবর্তীতে লিখিত পরীক্ষার সময় সঙ্কট আরও প্রকট হবে বলে উল্লেখ করে তিনি বলেন, অতীতে পিএসসির পক্ষ থেকে যে শ্রুতি লেখক দেয়া হয়েছে তাদেরকে নিয়ে তিক্ত অভিজ্ঞতা রয়েছে। পিএসসির হঠকারী ও স্বেচ্ছাচারী সিদ্ধান্তের কারণে তারা এ সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছেন বলে দাবি করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- আবুল হোসেন, আশরাফুল ইসলাম, এরশাদ শাহীন ভূঁইয়াসহ আরো অনেক দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী চাকরি প্রত্যাশী।

একেএস

Islami Bank
ASUS GLOBAL BRAND