• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ২০ এপ্রিল, ২০২১, ৭ বৈশাখ ১৪২৮
প্রকাশিত: মার্চ ৬, ২০২১, ০৪:৪৫ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : মার্চ ৬, ২০২১, ০৪:৪৫ পিএম

কর ফাঁকির অভিযোগে মুখ খুললেন তাপসী

কর ফাঁকির অভিযোগে মুখ খুললেন তাপসী

বাড়িতে আয়কর দফতর হানা দেওয়ার পর চুপচাপ ছিলেন তাপসী পান্নু। গণমাধ্যমে দেননি কোনো বিবৃতি। এবার তিনি টুইটারে মুখ খুললেন। কেন তাকে আয়কর তল্লাশির মুখে পড়তে হলো তার কারণ ব্যাখ্যা করে তিনটি টুইট করেন তিনি। 

প্রথম টুইটে তিনি লিখেছেন, “তিনদিন অনেক তল্লাশি, প্রাথমিকভাবে তিনটি বিষয় সামনে এসেছে। প্যারিসে আমার নিজের বাংলোর চাবি নিয়ে অভিযোগ উঠেছে। কারণ গ্রীষ্মের ছুটি খুব তাড়াতাড়ি শুরু হতে চলেছে।”

দ্বিতীয় টুইটে পাঁচ কোটি রুপির রশিদ প্রসঙ্গে এই অভিনেত্রী লিখেছেন, “পাঁচ কোটি রুপির যে রশিদ নিয়ে অভিযোগ উঠেছে, সেটি ভবিষ্যতের জন্য রেখে দিয়েছিলাম কারণ শুরুতে এই অর্থ আমি নিতে চাইনি।”

তৃতীয় টুইটে ভারতের অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমনের বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে তাপসী লেখেন, “আমাদের মাননীয় অর্থমন্ত্রীর তথ্য অনুযায়ী, যতটুকু মনে পড়ে ২০১৩ সালে আমার বাড়িতে তল্লাশি করা হয়।”

গত বুধবার মুম্বাই ও পুনের মোট ২২টি জায়গার তল্লাশি চালায় আয়কর দফতর। তাপসী পান্নু, অনুরাগ কাশ্যপের বাড়িতেও হানা দিয়েছিলেন আয়কর অফিসাররা। এরপর এক বিবৃতিতে আয়কর বিভাগের পক্ষ থেকে জানানো হয়, আর্থিক লেনদেনের হিসাবে গরমিল ও কর ফাঁকির প্রমাণ পেয়েছেন। এই বিষয়টি খতিয়ে দেখছে তারা।

বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়, ৩০০ কোটি রুপির আর্থিক লেনদেনের কোনো ব্যাখ্যা কর্মীরা দিতে পারেননি। এছাড়া ফ্যান্টম ফিল্মসের অংশীদারদের মধ্যে কর ফাঁকি দিয়ে ৩৫০ কোটি রুপি বণ্টনের প্রমাণ মিলেছে বলে জানানো হয়েছে। পাশাপাশি প্রকৃত বক্স অফিস আয়ের তুলনায় উপার্জনে বড়সড়ো পার্থক্য রয়েছে।