• ঢাকা
  • রবিবার, ১১ এপ্রিল, ২০২১, ২৭ চৈত্র ১৪২৭
প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০২১, ০১:৪২ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : মার্চ ২০, ২০২১, ০৩:১৭ পিএম

গুড়ে মিলবে শক্তি

গুড়ে মিলবে শক্তি

গুড় দিয়ে মুড়ি বা গরম দুধে ভাতে গুড় মিশিয়ে খেতে দারুন মজা। অনেকের বেশ প্রিয় এই খাবারটি। শরীর সুস্থতা ও রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে গুড় খাওয়ার পরামর্শ পুষ্টিবিদদের। বিশেষ করে শীতের সময়টাতে।

সারাবছরই এখন আখের গুড় ও খেজুরের গুড় পাওয়া যায়। যা তৈরি হয় আখের রস বা খেজুরের রস থেকে। রস সংগ্রহ করে বড় পাত্রে সংরক্ষণ করা হয়। কিছুক্ষণ পর জ্বাল দেওয়া হয়। এই রস আগুনের তাপে ফুটে ঘন হয়। এরপর তরল গুড় বা পাটালি গুড় তৈরি হয়।

পুষ্টিবিদরা বলেন, গুড় শরীরে তাপ উৎপাদন করে। শরীরের তাপমাত্রা ঠিক রাখে।। এতে আছে উচ্চ মানের ক্যালোরিফিক, যা শরীর উষ্ণ রাখে এবং শক্তি যোগায়।

এছাড়াও সর্দি-কাশি ও সাধারণ ঠাণ্ডাজনিত নানা অসুখ শরীরের তাপমাত্রা বেড়ে যাওয়া নিয়ন্ত্রণে রাখতে প্রতিদিন গুড় খেতে পারেন। সবচেয়ে বড় উপকার হচ্ছে, গুড় শরীরে ক্ষতিকর অনুজীব বৃদ্ধি পাওয়াকে  হ্রাস করে।

গুড়ে নানান খনিজ উপাদান যেমন- লৌহ, ম্যাগনেসিয়াম, জিংক, সেলেনিয়াম এবং পটাশিয়াম রয়েছে।  যা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। যেকোনো ভাইরাস সংক্রমণ থেকেও দূরে রাখে।

গলায় সমস্যা হলে গুড় খাওয়ায় উপকার পাবেন। যেমন- কফ, গলাব্যথা, ফোলা বা খুসখুস কাশি দূর হয়।

শ্বাসযন্ত্রের সমস্যা যেমন-কফ, বা বুকে কফ জমাট বাঁধা, রক্ত প্রবাহে সমস্যা ইত্যাদি দূর করতে সাহায্য করে গুড়।

রক্ত পরিষ্কার করতেও গুড়ের গুণাগুণ লক্ষনীয়। এটি হিমোগ্লোবিনের মাত্রা বাড়ায়। রক্তের অবাঞ্ছিত উপাদানগুলো দূর করে তা পরিস্কার রাখতে সহায়তা করে।

এছাড়াও গুড় পাকস্থলী, অন্ত্র, ফুসফুস এবং খাদ্যনালী সুরক্ষায় কাজ করে। এগুলোকে সক্রিয় রাখে।