• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ০২ জুলাই, ২০২০, ১৮ আষাঢ় ১৪২৭
প্রকাশিত: মে ১৭, ২০২০, ০৫:৫০ এএম
সর্বশেষ আপডেট : মে ১৭, ২০২০, ০৫:৫০ এএম

ব্রিটিশ আমেরিকান টোবাকো কোম্পানির চমক

পরীক্ষামূলক প্রয়োগের অপেক্ষায় তামাক পাতার করোনা ভ্যাকসিন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
পরীক্ষামূলক প্রয়োগের অপেক্ষায় তামাক পাতার করোনা ভ্যাকসিন
প্রতীকী ছবি

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ চিকিৎসায় বিশ্বের বিভিন্ন গবেষণা কেন্দ্রগুলো যখন মরিয়া প্রচেষ্টায় ব্যস্ত। ঠিক সে সময় অদ্ভুত এক করোনা প্রতিষেধক ভ্যাকসিনের উদ্ভাবন ও পরীক্ষামূলক প্রয়োগের সংবাদে গোটা পৃথিবীকে চমকে দিলো তামাকজাত পণ্য প্রস্তুতকারী বহুজাতিক কোম্পানি ব্রিটিশ আমেরিকান টোব্যাকো।

প্রতিষ্ঠানটি দাবি তামাক পাতার প্রোটিন দিয়ে করোনাভাইরাসের সম্ভাব্য ভ্যাকসিন তৈরি করেছে তারা। আর প্রি-ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে আশাব্যঞ্জক ফলের পর এবার মানবদেহে পরীক্ষামূলক প্রয়োগের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছে তারা।

ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স প্রকাশিত এক প্রতিবেদন অনুযায়ী, শুক্রবার (১৫ মে) ব্রিটিশ আমেরিকান টোব্যাকোর পক্ষ থেকে এই তথ্য জানিয়ে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের (এফডিএ) অনুমোদন পেলেই তারা ভ্যাকসিনটির প্রথম ধাপের পরীক্ষা অর্থাৎ তা মানবদেহে প্রয়োগ শুরু করবে।

সরকারি সংস্থা ও সঠিক উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানের সহায়তা পেলে তামাক পাতার প্রোটিন দিয়ে কোভিড-১৯ রোগের সম্ভাব্য ভ্যাকসিন তৈরি করে প্রতি সপ্তাহে ১০ থেকে ৩০ লাখ ডোজ উৎপাদন করতে সক্ষম হবে, গত এপ্রিলে কোম্পানিটি এমন ঘোষণা দেওয়ার পর সবাই চমকে যায়।

কোম্পানিটি আরও জানিয়েছে যে, নতুন এই সম্ভাব্য ভ্যাকসিন মানবদেহে প্রয়োগের অনুমোদন দেওয়ার জন্য তারা ইতোমধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের (এফডিএ) কাছে আবেদন করেছে। এছাড়া ভ্যাকসিন নিয়ে বিশ্বের অন্যান্য দেশের সরকারি সংস্থার সঙ্গেও আলোচনা করছে তারা।

বিশ্বের অসংখ্য ওষুধ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান, বিশ্ববিদ্যালয় ও সরকারি প্রতিষ্ঠানের গবেষকরা কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন তৈরির প্রতিযোগিতায় নেমেছেন। কয়েকটি ভ্যাকসিন অবশ্য ইতোমধ্যে মানবদেহে প্রয়োগ করাও হয়েছে। তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ভ্যাকসিন হাতে পেতে আরও এক থেকে দেড় বছর সময় লাগবে।

তাহলে কি প্রাণঘাতী তামাক পাতায় এবার প্রাণরক্ষার পথ্য পেতে যাচ্ছে বিশ্ববাসী? এ কথা সত্য হলে, সত্যিই ইতিহাসের এক চমকপ্রদ অধ্যায় রচিত হবে ব্রিটিশ আমেরিকান টোবাকো কোম্পানির হাত ধরে।

এসকে

আরও পড়ুন