• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২২ নভেম্বর, ২০১৯, ৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
প্রকাশিত: আগস্ট ২৯, ২০১৯, ০২:১৪ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : আগস্ট ২৯, ২০১৯, ০২:২৭ পিএম

১৫ আগস্ট নিয়ে এইচটি ইমামকে জিজ্ঞাসাবাদ করুন : রিজভী

জাগরণ প্রতিবেদক
১৫ আগস্ট নিয়ে এইচটি ইমামকে জিজ্ঞাসাবাদ করুন : রিজভী
নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে রুহুল কবির রিজভী -ছবি : জাগরণ

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের বিষয়ে এইচটি ইমামকে জিজ্ঞেস করলে সব উত্তর আওয়ামী লীগ পেয়ে যাবে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

বৃহস্পতিবার (২৯ আগস্ট) দুপুরে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হত্যাকাণ্ডের মাস্টারমাইন্ড জিয়াউর রহমান আর ২১ আগস্টের হত্যাকাণ্ডের মাস্টার মাইন্ড তারেক রহমান’  আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের এই বক্তব্যের জবাবে রিজভী এ মন্তব্য করেন। 

আওয়ামী লীগ দীর্ঘদিন ধরে ইতিহাস বিকৃত করার চেষ্টা করে আসছে অভিযোগ করে রিজভী বলেন, সত্যকে ঢেকে দিয়ে মিথ্যাকে প্রতিষ্ঠিত করতে আওয়ামী লীগ হরহামেশা মিথ্যাচার করে আসছে। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের সচিবালয় কর্মকর্তা-কর্মচারী ঐক্য পরিষদের আলোচনা সভায় বলেছেন, ‘পঁচাত্তর সালের ১৫ আগস্ট শেখ মুজিবুর রহমান হত্যাকান্ডের মাস্টারমাইন্ড জিয়াউর রহমান। ষড়যন্ত্রের পুনরাবৃত্তি একই সূঁত্রে গাথা। আগস্টেরই ২১ তারিখে বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে বঙ্গবন্ধুর কন্যাকেও নিশ্চিহ্ন করতে প্রকাশ্যে গ্রেনেড হামলা করা হয়েছিল। এখনও ওদের ষড়যন্ত্র চলছে।’ ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্য যদি সত্য হয়, তাহলে ১৫ আগস্টের মর্মস্পর্শী ঘটনার পর আওয়ামী লীগেরই লোকজন সরকার গঠন করলো কিভাবে ? 
 
তিনি বলেন, যারা সেদিন লাশ ডিঙিয়ে মোশতাক সরকারের স্পিকার থেকে শুরু করে মন্ত্রী-এমপি ছিলেন এদের অনেকেই বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে বড় বড় পদে অধিষ্ঠিত ছিলেন এবং তারা এমপি হলেন কিভাবে ?

রিজভী বলেন, ১৫ আগস্টের সময় বিএনপির সৃষ্টি হয়নি এবং শহীদ জিয়াউর রহমান তখন তো কোন গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে ছিলেন না। তাহলে তাকে অভিযুক্ত করতে আওয়ামী নেতারা এতো তৎপর কেন ? যে ব্যক্তিরা সাবেক রাষ্ট্রপতি মরহুম শেখ মুজিবুর রহমানের হত্যাকাণ্ডের প্লট তৈরি করেছিল, যে ব্যক্তিরা খন্দকার মোশতাকের শপথে অংশ নিতে বঙ্গভবনে গিয়েছিল। সেই ব্যক্তিরাই এখন সরকারের চারপাশে ঘোরাঘুরি করছে।

তিনি বলেন, আজকে পরিষ্কার হয়ে গেছে যে, এই আওয়ামী লীগ শুধুমাত্র ক্ষমতা ধরে রাখার জন্য, নিজেদের ক্ষমতা মগ্নতার কারণে তারা সাবেক রাষ্ট্রপতি শেখ মুজিবুর রহমানের হত্যাকারী এবং সেই হত্যার প্লট যারা তৈরি করেছিল সেইসব ব্যক্তিদের সঙ্গ সখ্যতা করতে পিছপা হয় না। অথচ কেবল প্রেসিডেন্ট শহীদ জিয়াউর রহমানকে হেয় করার জন্য ক্ষমতা দখল করে এ ধরনের অসত্য বক্তব্যের ধারাবর্ষণ করে যাচ্ছে।
 
ডেঙ্গু  প্রসঙ্গে রিজভী বলেন, সারাদেশে ডেঙ্গু মহামারী আকার ধারণ করেছে। মানুষ আতঙ্কে দিনযাপন করছেন। মিডিয়ার খবরে বলা হচ্ছে, প্রতিদিনই গড়ে ৩ জন করে ডেঙ্গু রোগীর মৃত্যু ঘটছে।

এ সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্ঠা ঢাবির শিক্ষক ড. সুকুমার বড়ুয়া, আবুল খায়ের ভূঁইয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুর রহমান শামিম, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম আজাদ প্রমুখ।

টিএস/একেএস

আরও পড়ুন