• ঢাকা
  • শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর, ২০১৯, ১ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬
প্রকাশিত: নভেম্বর ৫, ২০১৯, ০৭:৫৫ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : নভেম্বর ৫, ২০১৯, ০৭:৫৫ পিএম

সীমান্তের নদীতে গোসল করার ছলে অস্ত্র পাচার, গ্রেফতার ১

জাগরণ প্রতিবেদক
সীমান্তের নদীতে গোসল করার ছলে অস্ত্র পাচার, গ্রেফতার ১

বেনাপোল সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশে অস্ত্র পাচার চক্রের সন্ধান পেয়েছে গোয়েন্দা পুলিশ। এ চক্রটি নদীতে গোসলের কৌশলে সীমান্তে নদী পেরিয়ে ভারত থেকে অস্ত্র এনে রাজধানীতে শীর্ষ সন্ত্রাসীদের কাছে সরবরাহ করত। চক্রের সদস্য হাফিজুর রহমানকে গ্রেফতার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ। তার কাছ থেকে ১৭ রাউন্ড গুলিসহ ৪টি বিদেশি আগ্নেয়াস্ত্রও উদ্ধার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। 

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের উত্তর বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিসি) মশিউর রহমান জানান, হাফিজুরকে সোমবার রাতে রাজধানীর মিরপুর এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়। আজ মঙ্গলবার (৫ নভেম্বর) দুপুরে ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য দেন তিনি। তিনি বলেন, হাফিজুরদের চক্রটি কলকাতার অস্ত্র ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে অবৈধভাবে অস্ত্র এনে তা রাজধানীর অবৈধ অস্ত্র ব্যবসায়ী ও শীর্ষ সন্ত্রাসীদের কাছে বিক্রি করত।

মশিউর বলেন, গ্রেফতার হাফিজুর রহমান, তার সহযোগী হাবিবুর রহমান বিশ্বাস ও জিল্লুর রহমান ভারত থেকে বেনাপোল দিয়ে চোরাইপথে অবৈধ অস্ত্র ও গুলি বাংলাদেশে আমদানি করেন। প্রথমে এসব অবৈধ অস্ত্র বিহার থেকে কলকাতার অস্ত্র ব্যবসায়ীদের মাধ্যমে সীমান্তের বিভিন্ন এলাকায় লুকিয়ে রাখা হয়। পরে বাংলাদেশি অস্ত্র ব্যবসায়ীদের সঙ্গে দরদাম ঠিক করা হয়। শেষে পশ্চিমবঙ্গের উত্তর চব্বিশ পরগনার আংরাইল সীমান্ত ও বাংলাদেশের বেনাপোলের পুটখালী সীমান্ত দিয়ে এসব অস্ত্র দেশে প্রবেশ করে।

মশিউর রহমান বলেন, তারা নদীতে গোসল করার কৌশলকে কাজে লাগিয়ে এসব অস্ত্র দেশে এনে রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে বিক্রি করত। এসব অবৈধ অস্ত্র ভারত থেকে ৩০ হাজার টাকায় কেনা হতো বলে জানতে পেরেছি।

এইচ এম/ এফসি

আরও পড়ুন