• ঢাকা
  • বুধবার, ২১ অক্টোবর, ২০২০, ৫ কার্তিক ১৪২৭
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২০, ১২:৫১ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২০, ০২:০৩ পিএম

এমসি কলেজে গৃহবধূ ধর্ষণ

কর্তৃপক্ষের দায় খতিয়ে দেখবে তদন্ত কমিটি

জাগরণ ডেস্ক
কর্তৃপক্ষের দায় খতিয়ে দেখবে তদন্ত কমিটি
এমসি কলেজ ছাত্রাবাস। ফাইল ছবি

করোনাকালীন সাধারণ ছুটির আওতায় দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মতই বন্ধ ছিল সিলেটের এমসি (মুরারিচাঁদ) কলেজ। কিন্তু, দীর্ঘ ছুটির মাঝে কলেজ ছাত্রাবাস খোলা রাখা এবং শিক্ষার্থীদের সেখানে অবস্থান করার ইস্যুতে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েছে কলেজ কর্তৃপক্ষ।
 
সম্প্রতি কলেজের একটি ছাত্রাবাসে ঘটে যাওয়া এক গৃহবধূকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় কলেজ কর্তৃপক্ষের দায়বদ্ধতার বিষয়টি খতিয় দেখতে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যাচ্ছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তদন্ত কমিটি।

মঙ্গলবার (২৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে মন্ত্রণালয়ের তিন সদস্য বিশিষ্ট এই তদন্ত কমিটি এমসি কলেজের সেই ছাত্রাবাস পরিদর্শন করবে বলে জানা গেছে। এরপর তারা কলেজ পরিচালনা কমিটির সঙ্গে বৈঠক করবে।  ইতোমধ্যে তদন্ত কমিটি ঢাকা থেকে সিলেটের উদ্দেশে রওনা দিয়েছে বলে মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে।

সোমবার (২৮ সেপ্টেম্বর) মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের পরিচালক (কলেজ ও প্রশাসন) শাহেদুল খবীর চৌধুরীর নেতৃত্বে তিন সদস্যের এই কমিটি গঠন করা হয়।

এ প্রসঙ্গে এমসি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর সালেহ উদ্দিন আহমদ বলেন, ছাত্রাবাসের ঘটনার মন্ত্রণালয় থেকে তিন সদস্যের একটি কমিটি করা হয়েছে। কমিটির সদস্যরা মঙ্গলবার তদন্তের কাজে সিলেট আসছেন। ছাত্রাবাস পরিদর্শন শেষে তদন্ত কমিটি কলেজে বৈঠকে বসবেন।

জানা যায়, সরকারের নির্দেশনায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকলে এমসি কলেজের ছাত্রাবাস খোলা রাখে কলেজ কর্তৃপক্ষ। ছাত্রাবাস খোলা রেখে শিক্ষার্থীদের থাকতে দেওয়া নিয়ে কলেজ প্রশাসন ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েছে। এমন অবস্থায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

এদিকে দেশব্যাপী আলোচিত এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে গৃহবধূ সংঘবদ্ধ ধর্ষণকাণ্ডের প্রেক্ষিতে দায়েরকৃত মামলার অভিযুক্ত ৬ আসামীসহ মোট সাতজনকে গ্রেফতার করেছে আইনশৃঙখলা বাহিনী। এদের মধ্যে মামলার প্রধান আসামী সাইফুলসহ তিনজকে ৫ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

এসকে

আরও পড়ুন