• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর, ২০২০, ১৩ কার্তিক ১৪২৭
প্রকাশিত: অক্টোবর ৭, ২০২০, ০২:৪৮ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : অক্টোবর ৭, ২০২০, ০২:৪৮ পিএম

যেসব কারণে এইচএসসি পরীক্ষা বাতিল

জাগরণ ডেস্ক
যেসব কারণে এইচএসসি পরীক্ষা বাতিল

চলিত বছরের উচ্চমাধ্যমিক (এইচএসসি) বা সমমানের পরীক্ষা সরাসরি নেওয়া হবে না বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি। তবে পরীক্ষা না হলে মূল্যায়ন ভিন্ন হবে। জেএসসি ও এসএসসি পরীক্ষার ওপর ভিত্তি করেই এইচএসসি পরীক্ষার মূল্যায়ন হবে। এবং ফলাফল ডিসেম্বরের মধ্যেই প্রকাশ করা হবে। 

বুধবার (৭ অক্টোবর) দুপুরে শিক্ষা মন্ত্রণালয় আয়োজিত ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানান শিক্ষামন্ত্রী।

আরো পড়ুন: এইচএসসি পরীক্ষা হচ্ছে না, জেএসসি-এসএসসি মূল্যায়নে ফল

পরীক্ষা বাতিলের যুক্তি তুলে ধরে দীপু মনি বলেন, পরীক্ষা গ্রহণ করতে ৩০ থেকে ৩২ কর্মদিবস প্রয়োজন হবে। করোনা পরিস্থিতিতে এক বেঞ্চে দুজন বসানো সম্ভব নয়। সেক্ষেত্রে দ্বিগুন কেন্দ্র প্রয়োজন হবে। প্রশ্নপত্র প্যাকেটজাত করা হয়। নতুন প্যাকেট করারও সুযোগ নেই।

আরো পড়ুন: মূল্যায়নের ভিত্তিতে ডিসেম্বরেই এইচএসির রেজাল্ট

মন্ত্রী বলেন, কেন্দ্র দ্বিগুন করলে আরো জনবল প্রয়োজন হবে। প্রশাসনসহ সবার জনবল বাড়ানো প্রয়োজন রয়েছে। বিষয় কমানো হয়তো যায়, কিন্তু প্রতিটি বিষয়ের গুরুত্ব রয়েছে। অনেকে এতে ক্ষতিগ্রস্ত মনে করতে পারবে। করোনায় আক্রান্ত হলে তখন কী হবে। এ নিয়ে আমরা চিন্তা করছি। ভারতের পরীক্ষাও আমরা দেখেছি। তিনটি পরীক্ষা নেয়ার পর তাদের পরীক্ষা বাতিল করা হয়েছে। অনেক দেশে পরীক্ষা বাতিল কিংবা স্থগিত করেছে।

উল্লেখ্য, করোনার কারণে গত ১৭ মার্চ থেকে আগামী ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। গত ১ এপ্রিলে এইচএসসি পরীক্ষা শুরুর কথা ছিল। করোনার কারণে তা স্থগিত করা হয়।

 জাগরণ/এমআর