• ঢাকা
  • রবিবার, ০১ আগস্ট, ২০২১, ১৬ শ্রাবণ ১৪২৮
প্রকাশিত: জুলাই ১৮, ২০২১, ০১:৪৬ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : জুলাই ১৮, ২০২১, ০৭:৪৬ এএম

এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা

সরকারের পরিকল্পনা যদি-কিন্তুর ওপর

সরকারের পরিকল্পনা যদি-কিন্তুর ওপর
ফাইল ছবি

এবারের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা নিয়ে সরকারের বেশিরভাগ পরিকল্পনা নির্ভর করছে যদি-কিন্তুর ওপর।

ঘোষিত সময়ে পরীক্ষা না হলে, আবারও অটোপাসের পথেই হাটতে পারে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

ঘোষণা এসেছে পরীক্ষার বিষয়, সময় ও নম্বর কমার। এমন নতুন-নতুন সিদ্ধান্তে দিশেহারা পরীক্ষার্থীরা।

এইচএসসি পরীক্ষার ফল নিয়ে গতবছর জল ঘোলা কম হয়নি। কয়েক দফায় পরীক্ষার সম্ভাব্য সময় ঘোষণার পরও, করোনা পরিস্থিতির কারণে, শেষ পর্যন্ত, অটোপাসকেই বেছে নেয় সরকার।

শতভাগ পাসের রেকর্ড গড়ে সাড়ে ১৩ লাখের বেশি পরীক্ষার্থী।

এ বছরও এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা নিয়ে অনিশ্চয়তায় সরকার। সর্বশেষ সিদ্ধান্তে নতুন সিলেবাস অনুযায়ী, আবশ্যিক বিষয়ের মূল্যায়ন হবে, আগের পাবলিক পরীক্ষার ফলাফলে ভিত্তিতে। 

গ্রুপ ভিত্তিক নৈর্বাচনিক বিষয়ের অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিতে হবে শিক্ষার্থীদের। এসএসসির জন্য ১২ সপ্তাহে ২৪টি আর এইচএসসির জন্য ১৫ সপ্তাহে ৩০টি অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিতে হবে পরীক্ষার্থীদের।

এসএসসির জন্য ১৮ আর এইচএসসির ২৬ জুলাই থেকে অ্যাসাইনমেন্ট দেয়া শুরু হবে। আর যদি নভেম্বর-ডিসেম্বরে পরীক্ষা নেয়া যায়, তাতেও শুধু তিনটি নৈর্বাচনিক বিষয়ে পরীক্ষায় বসবে শিক্ষার্থীরা।  

যদিও শিক্ষা গবেষকরা বলছেন, একই পদ্ধতিতে সব বিষয়েরই পরীক্ষা নেয়ার সুযোগ রয়েছে। তবে, জীবনের গুরুত্বপূর্ণ পাবলিক পরীক্ষা নিয়ে বারবার নতুন নতুন সিদ্ধান্তে, মিশ্র প্রতিক্রিয়া রয়েছে শিক্ষার্থীদের।

এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা নিয়ে সরকারের এতো পরিকল্পনা নির্ভর করছে, অনেকগুলো যদি, কিন্তুর ওপর। যদি করোনা পরিস্থিতির উন্নতি না হয়, এ বছরও অটোপাস হবেন, প্রায় ৩৫ লাখ ছেলে-মেয়ে।

জাগরণ/এসএসকে/এমএ