• ঢাকা
  • শুক্রবার, ১৯ জুলাই, ২০১৯, ৩ শ্রাবণ ১৪২৬
Bongosoft Ltd.
প্রকাশিত: জুলাই ১১, ২০১৯, ১১:৫০ এএম
সর্বশেষ আপডেট : জুলাই ১১, ২০১৯, ১১:৫২ এএম

গোয়ার ১৫ জন কংগ্রেস বিধায়কের ১০ জন বিজেপিতে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
গোয়ার ১৫ জন কংগ্রেস বিধায়কের ১০ জন বিজেপিতে

এ যেন রাজনীতির আঙিনায় সংক্রামক রোগ। কর্নাটকে যখন সরকার বাঁচানোর আপ্রাণ চেষ্টা করছে ক্ষমতাসীন কংগ্রেস-জেডিএস জোট, ঠিক সেই সময় পাশের গোয়া বিধানসভাতেও হাতের সঙ্গ ছেড়ে গেরুয়া পতাকার আশ্রয়ে যাওয়ার হিড়িক। গোয়ায় ২০১৭ সালে একক সংখ্যাগরিষ্ঠ দল হয় কংগ্রেস। কিন্তু বর্তমানে দলবদলের হাওয়া লেগেছে সেই রাজ্যেও। জানা গেছে, ইতিমধ্যেই ১৫ জন কংগ্রেস বিধায়কের মধ্যে ১০ জন দল থেকে বেরিয়ে গিয়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন।

“বিরোধী দলনেতা সমেত ১০ জন কংগ্রেস বিধায়ক বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। বিজেপির শক্তি এখন বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৭ বিধায়কে। তারা রাজ্য ও নিজেদের নির্বাচনী এলাকার বিকাশের জন্যেই বিজেপির সঙ্গে এসেছে। কোনোরকম শর্ত ছাড়াই একেবারে নিঃশর্তভাবে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন তারা,” বলেছেন গোয়ার মুখ্যমন্ত্রী প্রমোদ সাওয়ান্ত। এর ফলে বর্তমানে কংগ্রেসে মাত্র ৫ জন বিধায়ক পড়ে রইলেন, অথচ ২০১৭ সালে এই কংগ্রেসই একক সংখ্যাগরিষ্ঠ দল হিসাবে গোয়ায় আত্মপ্রকাশ করে। তবে এখন দলের দুই-তৃতীয়াংশ বিধায়কই রাজ্যের শাসক দলে যোগ দেওয়ায় সঙ্কটে কংগ্রেস।

কংগ্রেসের পদত্যাগী বিধায়করা হলেন বাবু কাভলেকার, বাবুস মনসেরাট, তার স্ত্রী জেনিফার মনসেরাট, টনি ফার্নান্দেজ, ফ্রান্সিস সিলভেরা, ফিলিপ নেরি রড্রিগুজ, ক্লাফাসিও, উইলফ্রেড দে স, নিলকান্ত হালানকার ও ইসিডোর ফার্নান্দেজ। তারা যখন গোয়া বিধানসভার অধ্যক্ষের সঙ্গে দেখা করেন সেসময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী প্রমোদ সাওয়ান্তও। এর ফলে গোয়া বিধানসভার মোট ৪০ বিধায়কের মধ্যে বিজেপির বিধায়ক বেড়ে দাঁড়াল ১৭ জন।

বিদ্রোহী বিধায়কদের নেতা কাভলেকার বলেন, “যদি কোনো উন্নয়নই না হয়, তাহলে পরবর্তী সময়ে মানুষ কেন আমাদের নির্বাচন করবেন? কংগ্রেস তাদের প্রতিশ্রুতি পূরণ করতে পারেনি। কংগ্রেসের কাছে গোয়ায় সরকার গড়ার বেশ কিছু সুযোগও এসেছিল,কিন্তু কিছু প্রবীণ নেতাদের মধ্যে ঐক্যের অভাবের কারণেই সেটি করা সম্ভব হয়নি। ফলে আমরা এই পদক্ষেপ করেছি।”

তেলেঙ্গানাতেও গত মাসে একই ধরনের ঘটনা ঘটেছিল, কংগ্রেসের ১৮ জন বিধায়কের মধ্যে ১২ জন দলবদল করে মুখ্যমন্ত্রী কে চন্দ্রশেখর রাও-এর দলে আসেন। কর্নাটকে সরকার বাঁচানোর লড়াই চলাকানীলই নতুন করে এই গোয়া সংকট। প্রতিবেশী রাজ্য কর্নাটকে জনতা দল সেকুলার (জেডিএস) এর সঙ্গে কংগ্রেস জোট বেঁধে সরকার গড়ে। কিন্তু বর্তমানে ওই জোট থেক ১৮ জন বিধায়ক ইস্তফা দিয়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। সাময়িকভাবে ওই বিধায়কদের ইস্তফা নির্দিষ্ট পদ্ধতি মেনে হয়নি এই কথা বলে কর্নাটক বিধানসভার অধ্যক্ষ জোটকে সাময়িক স্বস্তি দিলেও পরবর্তীতে ওই বিধায়কদের ইস্তফা গৃহীত হলে কংগ্রেস-জেডিএস জোট সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারাবে, ফলে রাজনীতির বল গড়াবে বিজেপির অনুকূলে।

সূত্র : এনডিটিভি

এসজেড

আরও পড়ুন

Islami Bank
ASUS GLOBAL BRAND