• ঢাকা
  • বুধবার, ০২ ডিসেম্বর, ২০২০, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৭
প্রকাশিত: অক্টোবর ১৯, ২০২০, ০১:২০ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : অক্টোবর ১৯, ২০২০, ০১:২০ পিএম

ইমরান খানকে হটাতে লাখো জনতার বিক্ষোভ

জাগরণ ডেস্ক
ইমরান খানকে হটাতে লাখো জনতার বিক্ষোভ

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের পদত্যাগের দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে দেশটির লাখো মানুষ। ২০১৮ সালের নির্বাচনে সেনাবাহিনীর সহযোগিতায় ক্ষমতায় আসার অভিযোগ এনে রোববার বন্দরনগরী করাচিতে তার পদত্যাগ দাবি করে বিরোধী দলীয় জোটের নেতাকর্মীরা। 

করাচিতে সমাবেশ করার আগে গত শুক্রবার দেশটির গুজরানওয়ালা শহরে সমাবেশ করে বিরোধীরা। ইমরান খান ক্ষমতা গ্রহণের পর এটাই সবচেয়ে বড় কোন সমাবেশ যেখানে তার পদত্যাগের দাবি করা হয় এবং তার সরকার নিয়ে কড়া সমালোচনা করা হয়।

বর্তমান সরকারের বিরুদ্ধে দেশব্যাপী জনমত গড়ে তুলতে পাকিস্তানের ৯টি বিরোধী দল নিয়ে একটি জোট গঠন করেছেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ। জোটের নাম দেয়া হয়েছে পাকিস্তান ডেমোক্রেটিক মুভমেন্ট (পিডিএম)।

বিক্ষোভে বক্তব্য রাখেন বিরোধী দলীয় নেত্রী ও তিনবারের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফের মেয়ে মরিয়ম নওয়াজ। 

তিনি ইমরান খানকে উদ্দেশ্য করে বলেন, আপনি জনগণের কর্মসংস্থান কেড়ে নিয়েছেন। সাধারণ মানুষের সামনে থেকে দিনে দু’বেলার খাবার কেড়ে নিয়েছেন। সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেনজির ভুট্টোর ছেলে ও পাকিস্তান পিপলস পার্টির (পিপিপি) প্রেসিডেন্ট বিলাওয়াল ভুট্টো জারদারি বলেন, বাড়িতে অনাহারে আমাদের কৃষক। যুব শ্রেণি হতাশায়।

উল্লেখ্য, করোনা সংক্রমণ এমনিতেই সারাবিশ্বের মতো পাকিস্তানের অর্থনীতিতেও আঘাত হেনেছে। সেখানে মুদ্রাস্ফীতি দুই অংকে পৌঁছে গেছে। প্রবৃদ্ধি পৌঁছেছে নেগেটিভে। এ জন্য ইমরান খানের সরকারকে দায়ী করেন বিরোধীরা। ইমরান খান সরকারের ক্ষমতার মেয়াদ দুই বছর। এ সময়ে তিনি ভিন্ন মতাবলম্বী, সমালোচক ও বিরোধী দলীয় নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে ব্যাপক দমনপীড়ন চালিয়েছেন বলে অভিযোগ আছে। এ ছাড়া সেখানে সেন্সরশিপ খুব বেশি বলে বলা হচ্ছে।

জাগরণ/এমআর