• ঢাকা
  • সোমবার, ১৫ আগস্ট, ২০২২, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৯
প্রকাশিত: এপ্রিল ১৬, ২০২২, ০১:০২ এএম
সর্বশেষ আপডেট : এপ্রিল ১৫, ২০২২, ০৭:০২ পিএম

পাকিস্তান

‘ইমরান খান তোশাখানার হীরা দুবাইতে বিক্রি করেছেন’

‘ইমরান খান তোশাখানার হীরা দুবাইতে বিক্রি করেছেন’
ফাইল ফটো

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও তেহরিক ই ইনসাফের (পিটিআই) চেয়ারম্যান ইমরান খান ক্ষমতায় থাকতে সরকারি তোশাখানার উপহার বিক্রি করেছেন। নতুন প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ সাংবাদিকদের এ কথা জানিয়েছেন।

রাজধানী ইসলামাবাদে বৃহস্পতিবার (১৪ এপ্রিল) এক ইফতার মাহফিলে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ। তিনি বলেন, ‘ইমরান খান সরকারি তোশাখানার বেশ কিছু উপহার দুবাইতে ১৪ কোটি রুপিতে বিক্রি করেছেন।

প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ বলেন, ইমরান খান তোশাখানা থেকে কিনে নিয়ে হীরার অলঙ্কার, ব্রেসলেট, হাতঘড়ি ইত্যাদি দুবাইতে বিক্রি করেন।  তিনি আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর তিনিও একটি হাতঘড়ি উপহার পেয়েছিলেন। সেটা তিনি তোশাখানায় জমা দিয়েছেন। শাহবাজ বলেন, ‘এখানে লুকোছাপার কোনো বিষয় নেই। ’

ইমরান ক্ষমতায় থাকতে ইসলামাবাদ হাইকোর্টে একটি আবেদন করা হয়েছিল। সেই আবেদনে তোশাখানার বিস্তারিত প্রকাশ করার আরজি জানানো হয়েছিল। কিন্তু ইমরান খান তখন বলেছিলেন, অফিসিয়াল সিক্রেটস অ্যাক্ট এর কারণে এটা প্রকাশ করা যাবে না। এই প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ উল্লিখিত মন্তব্য করেন।

আইন কী বলে : আইনে বলা আছে, রাষ্ট্রপ্রধান বা সরকারপ্রধান কোনও দেশ থেকে উপহার পান, সেটা রাষ্ট্রীয় তোশাখানায় জমা দিতে হবে। তবে তিনি যদি ওই উপহার ব্যক্তিগতভাবে নিতে চান, তাহলে নিলামের মাধ্যমে সেটা কিনে নিতে হবে। এরপর নিলামের অর্থ রাষ্ট্রীয় কোষাগারে জমা দিতে হবে।

ক্ষোভ পিটিআইয়ের : প্রধানমন্ত্রী শাহবাজের এই মন্তব্যে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে পিটিআই। দলটির নেতা ও সাবেক তথ্যমন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরী বলেন, ‘ইমরান খানের প্রতি নোংরা ছুড়ছেন প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ। ’

ফাওয়াদ চৌধুরী বলেন, ইমরান খান একটি হাতঘড়ি উপহার পেয়েছিলেন। পাকিস্তান সরকারের কাছ থেকে তিনি সেটা কিনে নিয়েছিলেন এবং পরে বিক্রি করেছেন। তিনি প্রশ্ন করেন, ‘এখানে ইমরান খান কোথায় অপরাধ করলেন? তিনিতো সরকারের কাছে সেটা কিনে নিয়েছেন। ’ ডন ও জিও নিউজ।

জাগরণ/আন্তর্জাতিক/এমএ