• ঢাকা
  • বুধবার, ২১ অক্টোবর, ২০২০, ৫ কার্তিক ১৪২৭
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২০, ০১:২৩ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২০, ০১:২৩ পিএম

ধর্ষকের যৌনাঙ্গ কর্তনের আইন চেয়ে আদালত প্রাঙ্গণে জালাল

জাগরণ ডেস্ক
ধর্ষকের যৌনাঙ্গ কর্তনের আইন চেয়ে আদালত প্রাঙ্গণে জালাল
সংগৃহীত ছবি

সারাদেশে গত কয়েক সপ্তাহে বেশ কয়েকটি ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। অবস্থাদৃষ্টে মনে হচ্ছে, দেশে ধর্ষণের ঘটনা দিন দিন বাড়ছে। গত শুক্রবার রাতে সিলেটের এমসি কলেজ ক্যাম্পাসে স্বামীকে বেঁধে রেখে নববধূকে ছাত্রাবাসে নিয়ে দলবদ্ধভাবে ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। সাম্প্রতিক সময়ে রাজধানীতে অসুস্থ স্বামীর জন্য রক্ত জোগাড়ের কথা বলে গৃহবধূকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। খাগড়াছড়িতে ডাকাতি করতে ঘরে ঢুকে এক প্রতিবন্ধী তরুণীকে দলবেঁধে ধর্ষণ করা হয়েছে। এছাড়াও দেশের বিভিন্নস্থানে এমন আরো কয়েকটি ঘটনা ঘটেছে। গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে এক তরুণীকে (২০) দুইদিন ধরে আটকে রেখে দলবেঁধে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এছাড়ও নারায়ণগঞ্জ জেলার সিদ্ধিরগঞ্জে আড়াই বছরের ছেলের সামনেই গৃহবধূকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে।

উদ্ভূত পরিস্থিতিতে ধর্ষকের যৌনাঙ্গ কর্তনের আইন চেয়ে আদালতে প্ল্যাকার্ড হাতে দাঁড়ালেন সৈয়দ আহসান জালাল (৬০) নামে এক ব্যক্তি।

মঙ্গলবার (২৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ঢাকা জেলা ও দায়রা জজ নতুন ভবনের সামনের রাস্তায় তাকে প্ল্যাকার্ড হাতে দেখা যায়।

এ সময় তার হাতে থাকা প্ল্যাকার্ডে লেখা ছিল, ‘ধর্ষকের যৌনাঙ্গ জনসম্মুখে কর্তনের আইন কর। অবলা নারীদের রক্ষা কর। বর্তমান আইনে ধর্ষণ বন্ধ হবে না।’

জাগরণ/এমআর