• ঢাকা
  • সোমবার, ১১ নভেম্বর, ২০১৯, ২৭ কার্তিক ১৪২৬
প্রকাশিত: অক্টোবর ৮, ২০১৯, ১০:৪৬ এএম
সর্বশেষ আপডেট : অক্টোবর ৮, ২০১৯, ১০:৪৬ এএম

ফুটেজ হস্তান্তর করে ছাড়া পেলেন ২ পুলিশ কর্মকর্তা

জাগরণ প্রতিবেদক
ফুটেজ হস্তান্তর করে ছাড়া পেলেন ২ পুলিশ কর্মকর্তা
প্রেস ব্রিফিংয়ে ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার (ক্রাইম) কৃষ্ণপদ রায় - ছবি : কাশেম হারুন

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যার ঘটনায় সিসিটিভি ফুটেজ ন্যস্ত করার পর শিক্ষার্থীদের রোষ থেকে ছাড়া পেলেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) দুই কর্মকর্তা। সোমবার (৭ অক্টোবর) রাত সাড়ে ৮টার দিকে তারা ওই ফুটেজ হস্তান্তর করেন। এসময় শিক্ষার্থীরা তাদের ধন্যবাদ জানিয়ে হল অফিস থেকে বেরিয়ে যেতে দেন। ওই দুই পুলিশ কর্মকর্তার সঙ্গে হল প্রাধ্যক্ষকেও অবরুদ্ধ করে রাখা হয়েছিল।

এর আগে ফাহাদ হত্যাকাণ্ডের আলামত হিসেবে জব্দ হওয়া সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করেন ডিএমপির দুই অতিরিক্ত কমিশনার। পূর্ণাঙ্গ সিসিটিভি ফুটেজের দাবিতে বুয়েট শিক্ষার্থীরা পুলিশের এই দুই ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাকে ২ ঘণ্টারও বেশি সময় অবরুদ্ধ করে রেখেছিলেন শেরে বাংলা হল অফিসে।

বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীদের দাবি, ওই ভিডিও ফুটেজ তারা দেখতে চান। তারা আশঙ্কা করছেন, আলামত হিসেবে জব্দ হওয়া ভিডিও ফুটেজ বেহাত হয়ে গেলে আবরার হত্যাকাণ্ডে জড়িত ছাত্রলীগের নেতারা পার পেয়ে যেতে পারেন।

সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার (ক্রাইম) কৃষ্ণপদ রায় আবরার হত্যাকাণ্ডে সম্পৃক্ততার প্রমাণ পাওয়ায় ৯ জনকে আটক করার তথ্য জানিয়ে শেরে বাংলা হলে শিক্ষার্থীদের সামনে ব্রিফিং করেন। এসময় আরেক অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ডিবি) আব্দুল বাতেনও উপস্থিত ছিলেন।

প্রেস ব্রিফিং শেষ করে বের হতে চাইলে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা তাদের শেরে বাংলা হল অফিসে অবরুদ্ধ করে রাখেন। এসময় সঙ্গে থাকা প্রটোকলের সদস্যরা ওই দুই কর্মকর্তাকে হল অফিস থেকে বের করে আনতে চাইলে তারাও শিক্ষার্থীদের তোপের মুখে পড়েন। কয়েকশ পুলিশ সদস্য হুইসেল বাজিয়ে, লাঠিচার্জ করে, হল অফিস থেকে দুই অতিরিক্ত কমিশনারকে বের করে আনার চেষ্টা করেন। কিন্তু বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা উত্তেজিত হয়ে পুলিশ সদস্যদের হলের বাইরে বের করে দেন। 

ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার কৃষ্ণপদ রায় প্রেস ব্রিফিংয়ে জানান, বুয়েট শিক্ষার্থী ফাহাদ হত্যার ঘটনায় শনাক্ত ৯ জনকে আটক করা হয়েছে। তারা হলেন- বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মেহেদি হাসান রাসেল, সহ-সভাপতি মুস্তাকিম ফুয়াদ, সহ-সম্পাদক আশিকুল ইসলাম বিটু, উপ-দফতর সম্পাদক মুজতবা রাফিদ, উপ-সমাজকল্যাণ সম্পাদক ইফতি মোশাররফ সকাল, উপ-আইন সম্পাদক অমিত সাহা, ক্রীড়া সম্পাদক সেফায়েতুল ইসলাম জিওন, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক অনিক সরকার, গ্রন্থনা ও গবেষণা সম্পাদক ইশতিয়াক মুন্না।

এইচ এম/ এফসি

আরও পড়ুন