• ঢাকা
  • রবিবার, ০৭ মার্চ, ২০২১, ২৩ ফাল্গুন ১৪২৭
প্রকাশিত: জানুয়ারি ১৫, ২০২১, ০৭:০৪ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : জানুয়ারি ১৬, ২০২১, ০৯:২২ এএম

রাত পোহালেই পৌরসভা নির্বাচন

রাত পোহালেই পৌরসভা নির্বাচন

রাত পোহালেই দ্বিতীয় ধাপে পৌরসভা নির্বাচন। শনিবার (১৬ জানুয়ারি) দেশের ৬০টি পৌরসভায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। 

নির্বাচন কমিশন এরই মধ্যে সব ধরণের প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে। কমিশন সূত্রে জানা গেছে, ৬০ পৌরসভার মধ্যে ২৮টিতে ভোট নেওয়া হবে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম)। বাকি ৩২টিতে ভোট হবে ব্যালটে। সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত টানা ভোট চলবে।

এদিকে নোয়াখালীর বসুরহাটের সবগুলো কেন্দ্রকে ঝুঁকিপূর্ণ ঘোষণা করা হয়েছে। এই কেন্দ্রে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী আবদুল কাদের মির্জা। যিনি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই। কাদের মির্জার বিভিন্ন বক্তব্য সম্প্রতি দেশে বেশ আলোচনার ঝড় তুলেছে। 

অন্যদিকে নীলফামারীর সৈয়দপুরে স্বতন্ত্র প্রার্থী আমজাদ হোসেন সরকার মৃত্যুবরণ করায় সেখানে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে না বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশন।

পৌর নির্বাচনে সরকার কোনো প্রকার হস্তক্ষেপ করবে না বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।  

ইভিএমের ভোট গ্রহণের সমালোচনা করে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, “বাংলাদেশের জন্য সবচেয়ে খারাপ ব্যবস্থা ইভিএম। নির্বাচন কমিশন এটা নিয়ে ব্যবসা করছে।”


ইভিএমে নির্বাচন হবে যেখানে 
দিনাজপুরের বীরগঞ্জ, বগুড়ার সারিয়াকান্দি ও সান্তাহার, নওগাঁর নজিপুর, রাজশাহীর কাঁকনহাট ও আড়ানী, নাটোরের নলডাঙ্গা, সিরাজগঞ্জের কাজীপুর, পাবনার ফরিদপুর, মেহেরপুরের গাংনী, কুষ্টিয়ার কুমারখালী, ঝিনাইদহের শৈলকুপা, বাগেরহাটের মোংলা, মাগুরা সদর, পিরোজপুর সদর, টাঙ্গাইলের ধনবাড়ী, ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া, নেত্রকোনার কেন্দুয়া, কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচর, ঢাকার সাভার, নরসিংদীর মনোহরদী, নারায়ণগঞ্জের তারাবো, শরীয়তপুর সদর, সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর, কুমিল্লার চান্দিনা, ফেনীর দাগনভূঞা, নোয়াখালীর বসুরহাট, খাগড়াছড়ি সদর ও গাজীপুরের শ্রীপুর।

ব্যালটে নির্বাচন হবে যেখানে
চট্টগ্রামের সন্দ্বীপ, নেত্রকোনার মোহনগঞ্জ, কুষ্টিয়া সদর, কুষ্টিয়ার মিরপুর, মৌলভীবাজারের কুলাউড়া, কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী, গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ, দিনাজপুর সদর, মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ, কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা, গাইবান্ধা সদর, দিনাজপুরের বিরামপুর, পাবনার ভাঙ্গুড়া, সাঁথিয়া, সুজানগর, সুনামগঞ্জ সদর, হবিগঞ্জের মাধবপুর, নবীগঞ্জ, ফরিদপুরের বোয়ালমারী, পাবনার ঈশ্বরদী, বগুড়ার শেরপুর, রাজশাহীর ভবানীগঞ্জ, সিরাজগঞ্জের বেলকুচি, উল্লাপাড়া, সুনামগঞ্জের ছাতক, নাটোরের গোপালপুর, গুরুদাসপুর, বান্দরবানের লামা, সিরাজগঞ্জ সদর, রায়গঞ্জ, কিশোরগঞ্জ সদর, ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা।

নিরাপত্তা নিয়ে ইসির পক্ষ থেকে কঠোর পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। ইসি জানায়, একজন ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে নির্বাচনী এলাকায় বিজিবি, পুলিশ, আনসার মোতায়েন করা হয়েছে। এছাড়াও মোবাইল টিম টহল দেবে।

এর আগে প্রথম ধাপে ২৫টি পৌরসভায় ভোট গ্রহণ করা হয়েছে ২৮ ডিসেম্বর।  সেখানে আ.লীগ ১৮, স্বতন্ত্র ৩ ও বিএনপি ২ পৌরসভায় জয়ী হয়।