• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১৬ ফাল্গুন ১৪২৬

জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকীর ক্ষণগণনা

মুজিববর্ষ
প্রকাশিত: জানুয়ারি ১৬, ২০২০, ০৪:০৮ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : জানুয়ারি ১৬, ২০২০, ০৪:০৮ পিএম

স্কুলছাত্র সাম্য হত্যা, ৩ জনের ফাঁসি

গাইবান্ধা সংবাদদাতা
স্কুলছাত্র সাম্য হত্যা, ৩ জনের ফাঁসি
অপহরণের পর হত্যাকাণ্ডের শিকার আশিকুর রহমান সাম্য  -  ছবি : জাগরণ

বহুল আলোচিত গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জের স্কুলছাত্র আশিকুর রহমান সাম্যকে (১৪) অপহরণের পর হাত-পা বেঁধে হত্যার ঘটনায় দায়ের করা মামলায় ৩ জনের ফাসি ও ৮ জনের বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার (১৬ জানুয়ারি) চাঞ্চল্যকর এই হত্যা মামলার রায় ঘোষণা করেন গাইবান্ধা জেলা ও দায়রা জজ আদালত।

এর আগে ৬ জানুয়ারি জেলা ও দায়রা জজ দীলিপ কুমার ভৌমিকের আদালতে আইনজীবীদের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে ঘোষণার জন্য এই তারিখ নির্ধারণ করা হয়। দীর্ঘ ৪ বছর পর এই হত্যা মামলার রায় ঘোষণা করা হয়। রায়ে মামলার আসামি শাহরিয়ার সরকার হৃদয়, রকিবুল হাসান সজীব ও মাহমুদুল হাসান জকিবকে মৃত্যুদণ্ড দেয়া হয়। এ ছাড়া পৌর কাউন্সিলর জয়নাল আবেদীন, মাসুদ প্রধান সুজন, আল আমিন ইসলাম, রাবেয়া বেগম, আল আমিন, শিমুল মিয়া, রুনা বেগম ও জাহাঙ্গীর আলমকে প্রত্যেকের ৫ বছরের কারাদণ্ড ও ১ লাখ টাকা জরিমানার নির্দেশ দিয়েছেন বিজ্ঞ আদালত।

এই হত্যা মামলায় গোবিন্দগঞ্জে ৪০ দিন এবং গাইবান্ধা জেলা জজ আদালতে ১৭ দিন শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। মামলায় এ পর্যন্ত ১৯ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ করা হয়েছে। মামলার মোট ১১ আসামির মধ্যে ৬ আসামি জেলহাজতে রয়েছেন এবং বাকি ৫ আসামি জামিনে রয়েছেন।

২০১৫ সালের ২৪ সেপ্টেম্বর ঈদুল আজহার আগের দিন নিখোঁজ হয় গোবিন্দগঞ্জের পৌর মেয়র ও আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান সরকারের একমাত্র ছেলে আশিকুর রহমান সাম্য। নিখোঁজ হওয়ার পরদিন অর্থাৎ ২৫ সেপ্টেম্বর ঈদুল আজহার দিন সকালে বর্ধনকুঠি বটতলার কমিউনিটি সেন্টারের সেপটিক ট্যাংক থেকে সাম্যর হাত-পা বাঁধা লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। সাম্য গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ বহুমুখী উচ্চবিদ্যালয়ে নবম শ্রেণিতে পড়াশোনা করত।

এ হত্যা ঘটনায় ৯ নং ওয়ার্ড পৌর কাউন্সিলর জয়নাল আবেদীনকে প্রধান আসামি এবং সাম্যর সহপাঠীসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে গোবিন্দগঞ্জ থানায় হত্যা মামলা করেন তার বাবা আতাউর রহমান সরকার। পরে হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত সাম্যর সহপাঠী হৃদয়, জাকির ও হৃদয়ের মামাতো ভাই সজীবসহ আট আসামিকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

এনআই

আরও পড়ুন