• ঢাকা
  • রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৩ আশ্বিন ১৪২৮
প্রকাশিত: এপ্রিল ২৫, ২০২১, ১০:৫৬ এএম
সর্বশেষ আপডেট : এপ্রিল ২৫, ২০২১, ০৪:৫৬ এএম

মৃত্যুদণ্ডের রায় লিখে কলমের নিব ভাঙেন কেন বিচারক?

মৃত্যুদণ্ডের রায় লিখে কলমের নিব ভাঙেন কেন বিচারক?

আদালতে আসামির মৃত্যুদণ্ডের রায় লেখার পর বিচারক সেই রায়ের কপির উপরই তার কমলের নিবটি ভেঙে ফেলেন। শুধু সিনেমায় নয়, বাস্তব জীবনেও এটি দেখা যায়। ব্রিটিশ আমল থেকেই চলে আসছে এই রেওয়াজ। কিন্তু বিচারকরা কেন এই কাজটি করেন তা কি জানেন?

এটি কোনো আইন নয়, নিয়ম রক্ষার্থে মৃত্যুদণ্ডের রায় লেখার পর বিচারকরা কলমের নিব ভেঙে ফেলেন। তবে এই নিয়ম রক্ষার পেছনেও আছে একাধিক কারণ। চলুন জেনে নেয়া যাক সেগুলো—

প্রথমত, এটি হলো একটি প্রতীকী বিষয়। বিচারকরা মনে করেন, মৃত্যুদণ্ডের রায় লেখা কলমটি একজনের জীবন নিয়ে নিয়েছে। সেই কলমই যেনো আর কারো জীবন না নিতে পারে তাই তারা সেটির নিব ভেঙে ফেলেন।

দ্বিতীয়ত, কোনো আসামির মৃত্যুদণ্ডের রায় লেখার পর বিচারক যাতে কোনোভাবেই সেটি আর ফিরিয়ে নেওয়ার কথা ভাবতে না পারেন, তাই কলমের নিব ভেঙে ফেলা হয়।

তৃতীয়ত, মৃত্যুদণ্ডের রায় লেখার পর বিচারকরা যাতে কোনো অপরাধবোধে না ভোগেন, তাই তারা নিব ভেঙে ফেলেন।

চতুর্থত, কারো মৃত্যুই কখনো কাম্য নয়। কিন্তু সমাজে শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্য কখনো কখনো অপরাধীকে মৃত্যুর মতো শাস্তিও দিতে হয়। মৃত্যুকে দুঃখজনক বোঝাতেই বিচারকরা কলমের নিব ভেঙে ফেলেন।