• ঢাকা
  • বুধবার, ০৬ জুলাই, ২০২২, ২২ আষাঢ় ১৪২৯
প্রকাশিত: এপ্রিল ১৪, ২০২২, ১২:৩১ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : এপ্রিল ১৪, ২০২২, ১২:৩২ পিএম

নতুন উদ্যমে এগিয়ে যাওয়ার প্রত্যাশায় মঙ্গল শোভাযাত্রা

নতুন উদ্যমে এগিয়ে যাওয়ার প্রত্যাশায় মঙ্গল শোভাযাত্রা
সংগৃহীত

পুরোনো গ্লানি, হতাশা আর মলিনতাকে পেছনে ফেলে নতুন উদ্যমে এগিয়ে যাওয়ার প্রত্যাশায় বাংলা নববর্ষের প্রথম দিনে পয়লা বৈশাখে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে শুরু হয়েছে মঙ্গল শোভাযাত্রা।

আজ বৃহস্পতিবার বাংলা নববর্ষের প্রথম দিনে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্র (টিএসসি) এলাকার সড়কদ্বীপ থেকে শোভাযাত্রা হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের স্মৃতি চিরন্তন চত্বর হয়ে পুনরায় টিএসসিতে এসে শেষ হবে শোভাযাত্রা।

এবার রমজান মাস হওয়ায় পয়লা বৈশাখে পান্তা-ইলিশের আয়োজন নেই। তবে পান্তা-ইলিশের আয়োজন না থাকলেও নববর্ষ বরণে মানুষের উৎসাহ-উদ্দীপনার কমতি নেই।

এবারের শোভাযাত্রার মূল প্রতিপাদ্য ঠিক করা হয়েছে, ‘নির্মল করো, মঙ্গল করে মলিন মর্ম মুছায়ে।’ সকালে মঙ্গল শোভাযাত্রায় অংশ নিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী থেকে শুরু করে বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ টিএসসি এলাকায় সমবেত হন। শোভাযাত্রায় অংশ নিতে আসা নারীদের অনেকের পরনে শাড়ি আর মাথায় নানা রঙের ফুল। পুরুষদের পরনে পাঞ্জাবি। তবে সবারই চোখে-মুখে এগিয়ে যাওয়ার প্রত্যয়।

এদিকে মঙ্গল শোভাযাত্রা ঘিরে বুধবার রাত থেকেই টিএসসিসহ পুরো ক্যাম্পাস এলাকায় কঠোর নিরাপত্তাব্যবস্থা জোরদার করা হয়। মোতায়েন আছেন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর বিপুলসংখ্যক সদস্য। 

গত তিন দশক ধরে প্রতি বছরই পয়লা বৈশাখে চারুকলার শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের উদ্যোগে মঙ্গল শোভাযাত্রা বের হচ্ছে। ২০১৬ সালে ইউনেসকোর সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের স্বীকৃতি পায় এই শোভাযাত্রা। মঙ্গল শোভাযাত্রাকে বাঙালির হাজার বছরের অসাম্প্রদায়িক ঐতিহ্যের মেলবন্ধনের মাধ্যমে কূপমণ্ডূকতা ও সংকীর্ণতার ঘৃণ্য অবয়বের ওপর সাংস্কৃতিক আঘাত হিসেবে দেখা হয়ে থাকে।