• ঢাকা
  • বুধবার, ২৩ অক্টোবর, ২০১৯, ৮ কার্তিক ১৪২৬
প্রকাশিত: অক্টোবর ১০, ২০১৯, ০৫:৩৫ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : অক্টোবর ১০, ২০১৯, ০৫:৩৫ পিএম

ফাহাদ হত্যাকাণ্ড

অমিত সাহার প্রাথমিক সংশ্লিষ্টতা খুঁজে পেয়েছে পুলিশ

জাগরণ প্রতিবেদক
অমিত সাহার প্রাথমিক সংশ্লিষ্টতা খুঁজে পেয়েছে পুলিশ
বুয়েট শিক্ষার্থীদের সাক্ষাৎ আতঙ্ক ছিল এই অমিত সাহা

বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডের সাথে পরোক্ষভাবে অমিত সাহার সংশ্লিষ্টতা রয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে প্রমাণ পেয়েছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (১০ অক্টোবর) দুপুরে পর ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান ঢাকা মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার মনিরুল ইসলাম।

তিনি বলেন, অমিত সাহা ঘটনাস্থলে হয়তো সেদিন উপস্থিত ছিলেন না। কিন্তু আমাদের প্রাথমিক তদন্তে আবরার হত্যাকাণ্ডে তার পরোক্ষভাবে সংশ্লিষ্টতার যোগসূত্র পাওয়া গেছে। তদন্ত, পারিপার্শ্বিক অবস্থা ও তথ্যপ্রযুক্তির মাধ্যমে তার সংশ্লিষ্টতার বিষয়টি  উঠে এসেছে।

মনিরুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনায় আবরারের বাবা মোট ১৯ জনকে আসামি করে মামলা করেন। ঘটনা জানার পরপরই পুলিশ তৎপর হয়। নৃশংস ঘটনাটি যারা ঘটিয়েছে তাদের আইনের আওতায় নিয়ে আসতে এজাহার দায়েরের আগেই ১০ জনকে গ্রেফতার করা হয়। আদালতে সোপর্দ করে ১০ জনকে মোট পাঁচদিন করে রিমান্ডে নেয়া হয়েছে। এজাহারের পর দ্রুততার সঙ্গে আরও পাঁচজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

তিনি বলেন, এজাহার একটি প্রাথমিক তথ্য বিবরণী। সেই প্রাথমিক তথ্য বিবরণীর বাইরেও বেশ কয়েকজনের নাম উঠে আসে তদন্তে। সেই সূত্র ধরে এজাহারে নাম নেই কিন্তু তদন্তে ও অন্য গ্রেফতারদের জিজ্ঞাসাবাদে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে এবং বিভিন্ন তথ্য-প্রযুক্তির সাহায্য নিয়ে কয়েকজনের জড়িত থাকার তথ্য পেয়ে আরও তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। যাদের নাম এজাহারে ছিল না। প্রথম গ্রেফতার ১০ জনের সঙ্গে পরে গ্রেফতার তিনজনও রিমান্ডে রয়েছে। 

মনিরুল ইসলাম বলেন, এজাহারবহির্ভূত গ্রেফতাররা হচ্ছেন- অমিত সাহা, মিজানুর রহমান ওরফে মিজান ও শামসুল আরেফিন আরাফাত। প্রাথমিক তদন্তে ও তথ্যপ্রযুক্তির মাধ্যমে তাদের সংশ্লিষ্টতা পাওয়ায় তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে।

রোববার (৬ অক্টোবর) দিবাগত মধ্যরাতে বুয়েটের সাধারণ ছাত্র ও বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ফাহাদকে শেরেবাংলা হলের দ্বিতীয় তলা থেকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে যান। সোমবার (৭ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ৬টার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এর আগে বৃহস্পতিবার সকালে ঢাকার সবুজবাগ থেকে অমিত সাহাকে গ্রেফতার করা হয় বলে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের যুগ্ম-কমিশনার মাহবুব আলম নিশ্চিত করেছেন। আবরার ফাহাদ হত্যার ঘটনায় তার রুমমেট মিজানকেও গ্রেফতার করা হয়েছে। 

এইচএম/এসএমএম

আরও পড়ুন