• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর, ২০১৯, ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
প্রকাশিত: নভেম্বর ৪, ২০১৯, ০১:২০ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : নভেম্বর ৪, ২০১৯, ০১:২২ পিএম

নতুন সড়ক আইনে সাজা কার্যকর আগামী সপ্তাহ থেকে : ডিএমপি কমিশনার

জাগরণ প্রতিবেদক
নতুন সড়ক আইনে সাজা কার্যকর আগামী সপ্তাহ থেকে  : ডিএমপি কমিশনার
সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন ডিএমপি কমিশনার মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম -ছবি : সংগৃহীত

 আগামী সপ্তাহ থেকে নতুন সড়ক পরিবহন আইনে (২০১৮) ব্যবস্থা নেয়া শুরু হবে। রাজধানীর সড়ক থেকে শুরু করে দেশের সকল সড়কে নতুন সড়ক আইনের প্রয়োগ হবে। 

সোমবার (৪ নভেম্বর) সকালে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, আপাতত জরিমানা ও পুরানো স্লিপের মাধ্যমে ট্রাফিক আইনের কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। এর মধ্যে নতুন স্লিপ ও অন্যান্য উপকরণ ট্রাফিকের সকল বিভাগে পৌঁছে যাবে।

শফিকুল ইসলাম বলেন, নতুন আইন যদি কেউ প্রথমবার ভঙ্গ করে তাহলে তাকে সামান্য পরিমাণ জরিমানা করা হবে। একই সঙ্গে তাকে একটি লিফলেট দেয়া হবে যে পরবর্তীতে এই একই অপরাধ করলে তাকে আইন অনুযায়ী পুরো জরিমানা বা শাস্তি ভোগ করতে হবে। এক সপ্তাহ নতুন আইনে কোনও মামলা হবে না। এরপর থেকে রশিদের মাধ্যমে মামলা নেয়া শুরু হবে। পস মেশিনের সার্ভার আপডেট করার পরে এ পদ্ধতিতে মামলা নেয়া শুরু হবে।

তিনি বলেন, নতুন ট্রাফিক আইনের অন্যতম বৈশিষ্ট্য সাজার পরিমাণ বাড়ানো হয়েছে। এর ফলে সবার মধ্যে আইন মানার প্রবণতা বৃদ্ধি পাবে এবং ট্রাফিক ব্যবস্থা আরও উন্নত হবে।

ডিএমপি কমিশনার জানান, নতুন ধারা আইন সম্পর্কে ডিএমপির ৮০০ কর্মকর্তাকে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি আইন সম্পর্কে নতুন একটি বই বাজারে এসেছে। সব কর্মকর্তাকে এক মাসের মধ্যে নতুন আইন সম্পর্কে বিস্তারিত জানার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

পুলিশ কমিশনার বলেন, কিছু টেকনিক্যাল সমস্যার কারণে ১ নভেম্বর থেকে এ আইন কার্যকর করার কথা থাকলেও তা সম্ভব হয় নি। তবে আমরা সব ধরনের প্রস্তুতি গ্রহণ করেছি। আগামী সপ্তাহ থেকে নতুন সড়ক পরিবহন আইন প্রয়োগে ট্রাফিক পুলিশকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। ট্রাফিক পুলিশ সেভাবেই রাজধানীর বিভিন্ন পয়েন্টে আইন কার্যকরে সক্রিয় ভূমিকা পালন করবে।

এক প্রশ্নের জবাবে কমিশনার বলেন, আপাতত আমরা এই আইন পরিচালনা করব পুরানো নিয়মে। গাড়ির ফিটনেস, কাগজপত্র সঠিক না থাকলে জরিমানা করা হবে। একই সঙ্গে আগে যেভাবে মামলা করা হতো সেভাবেই মামলা পরিচালনা করা হবে।

এইচএম/এসএমএম

আরও পড়ুন