• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১৪ ফাল্গুন ১৪২৬

জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকীর ক্ষণগণনা

মুজিববর্ষ
প্রকাশিত: জানুয়ারি ২১, ২০২০, ০৬:১৭ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : জানুয়ারি ২১, ২০২০, ০৬:২৩ পিএম

যুব বিশ্বকাপ ২০২০

কোয়ার্টার ফাইনালে বাংলাদেশ

ক্রীড়া ডেস্ক
কোয়ার্টার ফাইনালে বাংলাদেশ

বয়সভিত্তিক পর্যায়ে, বিশেষত অনুর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেটে বরাবরই শক্ত প্রতিপক্ষ বাংলাদেশ। যদিও টাইগার যুবাদের সর্বোচ্চ সাফল্য যুব বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল খেলা। গত বছর আকবর আলীর নেতৃত্বাধীন দলের দুর্দান্ত পারফরম্যান্স এবার তা ছাড়িয়ে যাওয়ার স্বপ্ন দেখাচ্ছে। দক্ষিণ আফ্রিকায় অনুষ্ঠিত এবারের বিশ্বকাপের প্রথম দুই ম্যাচশেষে সেই পথে ভালোভাবেই আছে বাংলাদেশের যুবারা। 

প্রথম ম্যাচে জিম্বাবুয়েকে ৯ উইকেটে হারানোর পর স্কটল্যান্ডকে ৭ উইকেটের বড় ব্যবধানে হারিয়ে যুব বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে পৌঁছে গেছে বাংলাদেশের যুবারা। টস জিতে আগে ব্যাট করে মাত্র ৯০ রানের লক্ষ্য দেয় স্কটল্যান্ড, ১৬ ওভার ৪ বলেই ৭ উইকেট হারিয়ে লক্ষ্যে পৌঁছে যায় টাইগাররা। 

ছোট লক্ষ্যে খেলতে নেমে শুরুটা অবশ্য ভালো হয়নি বাংলাদেশের। স্কোরকার্ডে কোন রান তোলার আগেই সাজঘরে ফেরত যান ওপেনার তানজিদ হাসান। এরপর পারভেজ হোসেন ইমন ১৫ বলে ২৫ ও শামীম হাসান ৯ বলে ১০ রান করে সাজঘরে ফেরত গেলেও বাকি কাজটা সারেন তৌহিদ হৃদয় ও মাহমুদুল হাসান জয়। ১ চারে ২৭ বলে ১৭ রান করে হৃদয় ও ৪ চারে ৪৮ বলে ৩৫ রান করেন জয়। স্কটল্যান্ডের পক্ষে তিনটি উইকেটই নেন ফিশ্চার কেওগা।

এর আগে শুরু থেকেই স্কটল্যান্ডের ব্যাটসম্যানদের চেপে ধরে বাংলাদেশের বোলাররা। ৯ রানে মাথায় প্রথম আঘাত হানেন পেসার শরিফুল ইসলাম। ঠিক তার দুই রান পরই আবারও প্রতিপক্ষ শিবিরে আঘাত হানেন এই পেসার।ম্যাককিনতসকে পরিণত করেন আকবর আলির ক্যাচে।

এরপর আঘাত হানেন দুই পেসার তানজিম হাসান সাকিব ও মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরীও। পেসারদের দাপটের সব চেয়ে বড় ঘটনাটা ঘটান স্পিনার রকিবুল হাসান। নিজের ৪র্থ ওভারে করে ফেলেন হ্যাটট্রিক। কেস সাজ্জাদকে ৭ রানের বেশি করতে না দিয়ে বোল্ড করেন রাকিবুল। পরের বলে লেইল রবার্টসনকে লেগ বিফোর উইকেটের ফাঁদে ফেলেন রাকিবুল। চার্লি পিটকে পরের বলে বোল্ড করে হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেন তিনি। 

স্কটিশদের পক্ষে সর্বোচ্চ ৪৮ বলে রান ২৮ করেন উজাইর শাহ। এছাড়া দুই অঙ্ক ছুঁয়েছেন কেবল দুই জন। ২৪ বল থেকে অধিনায়ক আঙ্গুস গাই করেন ১১ রান ও ২২ বলে ১৭ রান করেন জেমি কারনিস। বাংলাদেশের পক্ষে বল হাতে রাকিবুল হাসান ৪টি ও শরিফুল এবং তানজিদ হাসান পান ২টি করে উইকেট।

এমএইচবি