• ঢাকা
  • বুধবার, ০৮ এপ্রিল, ২০২০, ২৫ চৈত্র ১৪২৬
প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২০, ০২:২৭ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২০, ০২:২৭ পিএম

শাহাদাতের ঘূর্ণিতে দিশেহারা জিম্বাবুয়ে

ক্রীড়া ডেস্ক
শাহাদাতের ঘূর্ণিতে দিশেহারা জিম্বাবুয়ে

কয়েকদিন আগেই বিশ্বকাপ জয় করে এসেছেন। দেশে এসে পেয়েছেন বড় সংবর্ধনাও। এরপর নিজ নিজ এলাকাতেও সংবর্ধনা পেয়ছেন বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলের ক্রিকেটাররা। তবে সে আনন্দে বেশি দিন মেতে থাকার সুযোগ পাননি ওই দলের ছয় ক্রিকেটার। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে ৬ ক্রিকেটার নেমেছেন মাঠে। যেখানে ঝলক দেখাচ্ছেন অলরাউন্ডার শাহাদাত হোসেন। নিজের ঘূর্ণিতে দিশেহারা করছেন জিম্বাবুয়ের ব্যাটসম্যানদের। 

শাহাদাতের স্পিনঘূর্ণিতে নীল হয়ে দারুণ শুরুর পরও বিপাকে পড়ে গিয়েছে জিম্বাবুয়ে। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত তাদের সংগ্রহ ৫৭.৪ ওভারে ৬ উইকেটের বিনিময়ে ১৭৭ রান। সাত নম্বরে বোলিং করতে এসে মাত্র ১৬ রান খরচায় ৩ উইকেট নিয়েছেন শাহাদাত।

অনানুষ্ঠানিক এ প্রস্তুতি ম্যাচে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড একাদশের হয়ে শাহাদাত হোসেন ছাড়াও খেলছেন আরও পাঁচ ক্রিকেটার। তারা হলেন- অধিনায়ক আকবর আলি, ওপেনার পারভেজ হোসেন ইমন, মাহমুদুল হাসান জয়, পেসার শরিফুল ইসলাম এবং ওপেনার তানজিদ হাসান তামিম।

কুয়াশাচ্ছন্ন সকালে টস জিতে আগে ব্যাট করতে নেমেছিল জিম্বাবুয়ে। দুই ওপেনার কেভিন কাসুজা এবং প্রিন্স মাসভাউরে মিলে দুর্দান্ত ব্যাটিং প্রদর্শনী দেখায়। দুজনের জুটিতে আসে ১০৫ রান।


ইনিংসের ৩১তম ওভারে বিসিবি একাদশের অধিনায়ক আল আমিনের বোলিংয়ে উইকেটের পেছনে থাকা আকবর আলির হাতে ক্যাচ দেন মাসভাউরে। আউট হওয়ার আগে করেন ৭৭ বলে ৪৫ রান।

সঙ্গী বিদায় নিলেও প্রায় দুই সেশন ব্যাট করেছেন কাসুজা। ষষ্ঠ ব্যাটসম্যান হিসেবে রানআউট হওয়ার আগে ১৩০ বলে ৭০ রান করেছেন তিনি। তিন নম্বরে নামা ব্রায়ান মুদজিঙ্গানিমা ১৭ রান করে আউট হন শরিফুল ইসলামের বলে। তিনিও ক্যাচ দেন আকবরের হাতে
 
এরপর জিম্বাবুয়ের ইনিংসে হানা দেন শাহাদাত। একে একে আউট করেন জিম্বাবুয়ে অধিনায়ক ক্রেইগ আরভিন, রেগিস চাকাভা এবং টিনোটেন্ডা মুতোমবদজিকে। এদের মধ্যে চাকাভা এবং মুতোমবদজি আউট হন তিন বলের ব্যবধানে, দুজনই কাঁটা পড়েন লেগ বিফোরের ফাঁদে।

এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত শাহাদাতের বোলিং ফিগার ৮-২-১৬-৩। অনূর্ধ্ব-১৯ দলের আরেক সদস্য বাঁহাতি পেসার শরিফুল ইসলামও দারুণ বোলিং করেছেন। দশ ওভারে ৪ মেইডেনের সহায়তায় মাত্র ২৫ রানে ১ উইকেট নিয়েছেন তিনি।